রোহিত শর্মা আর রেকর্ড প্রায় সমার্থক হয়ে গিয়েছে। বিশ্বকাপে সৌরভ, সচিন, সাঙ্গাকারা-সহ একাধিক বড় নামকে পিছনে ফেলে দিয়েছিলেন হিটম্যান। পাঁচ-পাঁচটি শতরান করেছিলেন। শনিবার বিশ্বকাপের পর ফের ২২ গজে নামছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। রোহিতের বিশ্বকাপের ফর্মই কি দেখা যাবে? নাকি গত ১৫ দিনে মরচে পড়ল তাঁর ব্যাটে, এই নিয়ে বেশ কৌতূহল রয়েছে।

তারমধ্যেই অবশ্য আসন্ন সিরিজে তিন-তিনটি রেকর্ড ভাঙার মুখে দাঁড়িয়ে আছেন ভারতীয় সহ-অধিনায়ক। ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের সোনার দিন গেলেও টি২০ ক্রিকেটে কিন্তু দ্বীপপুঞ্জের ক্রিকেট দল এখনও দারুণ শক্তিশালী। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে বর্তমান ভারতীয় দলে টি২০আই-তে সবচেয়ে সফল রোহিতই। ৪৭.৭১ গড়ে ও ১৪৫.৮৫ স্ট্রাইক রেটে দুটি অর্ধশতরান ও টি শতরান সহ রোহিত ৩৩৪ রান করেছেন।

একই সঙ্গে ছয় মারার দক্ষতার জন্য বিখ্য়াত রোহিত শর্মা। আন্তর্জাতিক টি২০ ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত তিনি ৯৪ ম্যাচে ১০২টি ছয় মেরেছেন। সর্বোচ্চ ছয় মারার রেকর্ড রয়েছে ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি ক্রিস গেইলের ঝুলিতে। তিনি মেরেছেন ১০৫টি ছয়। অর্থাৎ আর মাত্র ৪টি ছয় মারলেই হাত বদল হয়ে রেকর্ডটি গেইলের হাত থেকে আসবে হিটম্যানের জিম্মায়।

শুধু তাই নয়, সব ধরণের ক্রিকেট মিলিয়ে ওপেনার হিসেবে বর্তমানে তাঁর মোট ছয়ের সংখ্যা ২৯৪টি। অর্থাৎ আর মাত্র ৬টি ছয় মারতে পারলেই ইনিংসের গোড়াপত্তনারী হিসেবে ৩০০টি ছয় মারার মাইলস্টোনে পৌঁছবেন তিনি। এই বিষয়ে তাঁর আগে আছেন ক্রিস গেইল (৫২২) ও সনৎ জয়সূর্য (৩৩৫)।

এছাড়া আর দুটি অর্ধশতরান করলেই ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে পাঁচটি পঞ্চাশোর্ধ রানের ইনিংস হয়ে যাবে। এখনও পর্যন্ত একমাত্র তিলকরত্নে দিলশানের মোট চারটি অর্ধশতরান আছে ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে। সেটাই ক্য়ারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে কোনও ব্য়াটসম্যানের সবচেয়ে বেশি পঞ্চাশোর্ধ রানের ইনিংসের রেকর্ড। হিটম্যান কিন্তু তাও গুড়িয়ে দিতে পারেন।