করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের রোডম্যাপ নিয়ে আলোচনায় বসতে বাধ্য হচ্ছে সকলে। এর মধ্যে নিজের মতামত প্রকাশ করলেন ভারতীয় লেগস্পিনার যজুবেন্দ্র চাহাল। তিনি মনে করেন যদি ক্রিকেট ফেরে তাহলে কোনও সিরিজ খেলানোর আগে আইপিএল আয়োজনের ব্যবস্থা করা উচিত। অনেক দিন টানা মাঠের বাইরে থাকার পর সরাসরি দেশের হয়ে নেমে পড়াটা অত সরল নয় বলে মনে করছেন চাহাল। ফলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, যা এই বছরের শেষে আয়োজিত হওয়ার কথা তা পরের বছর নিয়ে গিয়ে সেই জায়গায় আইপিএল আয়োজনের যে প্রস্তাব উঠে এসেছে তার সাথে সহমত পোষণ করেন চাহাল। 

আরও পড়ুনঃ'শেন ওয়ার্নকে নিয়ে খেলা করত সচিন তেন্ডুলকর' জানালেন ব্রেট লি

চলতি বছরের অক্টোবর মাসে শুরু হওয়ার কথা ছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে সারা বিশ্ব জুড়ে যে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে তার জেরে আদেও ওইসময় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন সম্ভব হবে কিনা তা নিয়ে দ্বিধায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। ব্রেন্ডন ম্যাকুলামের মতন প্রাক্তন খেলোয়াড় থেকে শুরু করে বর্তমানের ক্রিকেট খেলোয়াড় অনেকেই মনে করেন যে বিশ্বকাপ পিছিয়ে পরের বছর নিয়ে যাওয়া উচিত। কারণ এই সময় আয়োজন করলে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলতে হতে পারে দলগুলিকে যা অনেকেই মেনে নিতে পারবেন না। 

আরও পড়ুনঃমেসি,সুয়ারেজদের এখনই দেখা যাবে না বল পায়ে, করোনা নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে নারাজ স্পেন

আরও পড়ুনঃলকডাউনের মধ্যেও দল গোছাতে তৎপর ইষ্টবেঙ্গল,সই করালো শেহনাজ সিং, বিকাশ জাইরু, কেভিন লোবোকে

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে চাহাল জানিয়েছেন তার মতে এখন সবচেয়ে ভাল হয় যদি আইপিএলের মধ্যে সব ক্রিকেটাররা ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন করেন। তাহলে সবাই দেশের হয়ে মাঠে নামার আগে নিজেকে প্রস্তুত করে নেওয়ার সময় পাবেন। ২ মাস ধরে আইপিএল চললে ম্যাচ খেলে ক্রিকেটাররা দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে থাকার যে অভ্যাস তা কাটিয়ে উঠতে পারবেন। প্রসঙ্গত বছরের শেষ ভাগে যে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজিত হওয়ার কথা ছিল তা আয়োজিত হতে পারে পরের বছরের ফেব্রুয়ারি কিংবা মার্চ মাসে।