ঐন্দ্রিলাকে অনবরত চুমু খাচ্ছে দিদি ঐশ্বর্য, বুনুর সুখস্মৃতির ভিডিও পোস্ট করতেই চোখ ভিজল নেটপাড়ার

| Nov 25 2022, 09:39 AM IST

Aindrila Sharma
ঐন্দ্রিলাকে অনবরত চুমু খাচ্ছে দিদি ঐশ্বর্য, বুনুর সুখস্মৃতির ভিডিও পোস্ট করতেই চোখ ভিজল নেটপাড়ার
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

দেখতে দেখতে চারদিন কেটে গেলে ঐন্দ্রিলা আরে নেই। এইভাবে ছেড়ে যাওয়াটা মানতে পারছে না পরিবার।বুনুকে হারিয়ে নিসঙ্গ হয়ে পড়েছে দিদিভাই। প্রতিদিন বোনের কোনও না কোনও সুখস্মৃতি শেয়ার করে চলেছেন ঐশ্বর্য।

মাত্র ২৪-এ শেষ হয়ে গেল তরতাজা প্রাণ। তবে ঐন্দ্রিলা হারিয়ে যায়নি বরং তিনি রয়েছেন সকলের মাঝে। মৃত্যুর সঙ্গে অদম্য লড়াই শেষ হয়ে গেল গত রবিবার। ২০ নভেম্বর টলিউডের একটা কালো দিন। দুপুর ১২ টা ৫৯ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। বয়স কম বলেই আশায় বুক বেঁধেছিলেন চিকিৎসকেরা। তবে সেই আশা পূরণ হল না চিকিৎসকদের। সকলকে কাঁদিয়ে চিরদিনের মতো চলে গেলেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। বুনুকে হারিয়ে বড্ড একা হয়ে গেছেন দিদি ঐশ্বর্য। বুনুর স্মৃতিগুলোই আঁকড়ে ধরে রয়েছেন ঐন্দ্রিলার দিদি ঐশ্বর্য।

দেখতে দেখতে চারদিন কেটে গেলে ঐন্দ্রিলা আরে নেই। তবে এইভাবে ছেড়ে যাওয়াটা মানতে পারছে না পরিবার। কোনওভাবেই ঐন্দ্রিলার মৃত্যুশোক কাটিয়ে উঠতে পারছেন না তার মা- বাবা , দিদি, ও প্রেমিক সব্য। পরিবারের সকলের ছোট হলেও তিনিই ছিলেন পরিবারের মেরুদন্ড। দিদি ঐশ্বর্যকে হামেশাই আগলে রাখত বুনু। আর দিদিও বুনুর কথা ছাড়া এক পাও বাড়াতেন না। বুনুকে হারিয়ে নিসঙ্গ হয়ে পড়েছে দিদিভাই। প্রতিদিন বোনের কোনও না কোনও সুখস্মৃতি শেয়ার করে চলেছেন ঐশ্বর্য। ফের ফেসবুকের দেওয়ালে ঐন্দ্রিলার সঙ্গে মজার স্মৃতি শেয়ার করে নিলেন ঐশ্বর্য। অন্যদিকে ঐন্দ্রিলাকে হারিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দূরে চলে গেছেন সব্যসাচী চৌধুরী।

Subscribe to get breaking news alerts

 

 

বোনের শেষবিদায়ে ঠোঁটে লিপস্টিক, কপালে টিপ পরিয়ে বোনকে সাজিয়ে দিয়েছিলেন দিদি ঐশ্বর্য। বোনকে হারিয়ে শোকে পাথর দিদি ঐশ্বর্য। ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্ট করে চলেছেন ঐশ্বর্য শর্মা।চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে ঐন্দ্রিলার জন্মদিনের দিনই এই ভিডিও তোলা হয়েছিল। হলুদ রঙের সালোয়ার কামিজ পরে সোফায় বসে রয়েছেন ঐন্দ্রিলা। বুনুর গালে চকোলেট কেক মাখিয়ে দিচ্ছেন ঐশ্বর্য, আর একের পর এক চুমু খেয়েই যাচ্ছেন। ঐন্দ্রিলার পাশেই বসে রয়েছেন সব্যসাচী। এই পোস্ট ভাইরাল হতে যেমন বেশি সময় নেয়নি তেমনই দেখা মাত্রই চোখের কোণও ভিজেছে। বারবারই পুরোনো স্মৃতি গুলো দেখছেন ঐশ্বর্য। গত ১ লা নভেম্বর ব্রেন স্ট্রোক হয় ঐন্দ্রিলার। তড়িঘড়ি করে হাওড়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ঐন্দ্রিলাকে। ব্রেন স্ট্রোকের ফলে মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে গিয়েছিল। ইন্ট্রা সেরিব্রাল হ্যামারেজ হয়েছিল ঐন্দ্রিলার। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এমআরআই করানো হয়। এই লড়াইয়ে শুরু থেকেই পাশে ছিলেন প্রেমিক সব্যসাচী চৌধুরী। ফাইট ঐন্দ্রিলা ফাইট-সকলের মুখেই এতদিন একটাই প্রার্থনা ছিল। এই ডাকে আর সাড়া দিলেন না ঐন্দ্রিলা । সকলকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন জিয়নকাঠি নায়িকা ঐন্দ্রিলা শর্মা। দুবার ক্যান্সারকে জয় করেও এবার আর ঘরে ফেরা হল না ঐন্দ্রিলা শর্মার। দীর্ঘ ১৯ দিন ধরে লড়াই চালিয়েও আর শেষরক্ষা হল না। অভিনেত্রীর মৃত্যুতে শোকের ছায়া টলিউডে।