করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই যেন বাড়ছে। সারা বিশ্ব জুড়ে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে এই করোনা ভাইরাস। মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ভারতেও হানা দিয়েছে এই মারণ ভাইরাস। এই করোনা সংক্রমনের জেরে ভারতে আসার পরিকল্পনা বাতিল করলেন থর অভিনেতা ক্রিস হেমসওয়ার্থ। সূত্র থেকে জানা গেছে দু -দিনের জন্য ভারত সফরে আসার কথা ছিল অভিনেতা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এই ভারত সফর বাতিল করেছেন অভিনেতা। ১৬ মার্চ ভারতে আসার কথা ছিল হেমসওয়ার্থের। 

আরও পড়ুন-প্রেমের রঙে নয়, দোলের রঙে রঙিন রাজ-শুভশ্রী...

অভিনেতার ভারতে আসার আসল উদ্দেশ্য ছিল  স্যাম হারগ্রেভের নির্দেশনায় 'এক্সট্র্যাকশন' ছবির প্রচার। কিন্তু তা আর হল না। বাতিল হয়ে গেল তার ভারত সফর। করোনা ঠেকাতেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জনসমাগম থেকে সকলকে দূরে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। সেই আর্জির পর থেকে ভারতে আসার ঝুঁকি হয়ে যাবে বলেই এই পরিবর্তিন। এর আগে বাংলাদেশের রাজধানী 'ঢাকা'র নামানুসারে সিনেমাটির নাম হয়েছিল 'ঢাকা'। শেষ মুহূর্তে নাম পরিবর্তন করে 'এক্সট্র্যাকশন' রাখা হয়। ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন হলিউডের সুপারহিরো ক্রিস হেমসওয়ার্থ। ছবি ঘিরে বাংলাদেশেরও প্রবল আগ্রহ রয়েছে।

আরও পড়ুন-'সেফ হোলি খেলুন', শহরবাসীকে বিশেষ বার্তা দিয়ে শুভেচ্ছা ঋতুপর্ণার...


থর খ্যাত অভিনেতা ক্রিস হেমসওয়ার্থের পাশাপাশি এই ছবিতে রয়েছেন ইরানি শিল্পী গোলশিফতা ফারাহানি, হলিউডের ডেভিড হারবার, ডেরেক লু, বলিউডের পঙ্কজ ত্রিপাঠি, রণদ্বীপ হুদা-সহ অনেকে। কিছুদিন আগেই শ্যুটিং সেটে হাঁটুতে চোট পেয়েছেন রণদীপ। সূত্র থেকে আরও জানা গেছে আগামী মাসের  ২৪ এপ্রিল ছবিটি মুক্তি পাবে নেটফ্লিক্সে। এরই মধ্যে ছবির ফার্স্টলুক প্রকাশ্যে এসেছে।আরওজানা গিয়েছে, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা শহর ঘিরেই আবর্তিত হয়েছে ছবির কাহিনী। তবে, ছবিটির বেশির ভাগ দৃশ্য শ্যুট হয়েছে ভারত ও থাইল্যান্ডে। বাংলাদেশও বিমুখ হয়নি। ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পাঁচ দিন পুরনো ঢাকায় এবং সংসদ ভবন চত্বরে ছবিটির শ্যুটিং হয়েছে।শুটিংয়ের জন্য ঢাকার আদলে বানানো হয় ছোট্ট একটি শহরও। ছবিতে দেখা যাবে, অপহৃত এক শিশুকে ঢাকা থেকে উদ্ধার করবেন হেমসওয়ার্থ। হেমসওয়ার্থ অভিনীত ছবিটিী মূলত  অ্যাকশন ও থ্রিলারধর্মী ছবি। এটি প্রযোজনা করেছেন পরিচালক জো রুশো ও অ্যান্থনি রুশো। কাহিনি ও চিত্রনাট্য তাদেরই লেখা। ছবিটির নির্দেশক স্যাম হারগ্রেভ।