ডলবি থিয়েটারে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয় অস্কার। করোনা আবহে অন্যান্য অনুষ্ঠানের মত সকল বিনোদনপ্রেমীদের অনুমান ছিল অস্কারও আয়োজিত হবে অনলাইনে। তবে এই সিদ্ধান্তে অমত অ্যাকাডেমি অফ মোশন আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সের। বিবৃতি মারফত তারা জানায়স ২০২১ সালেই পুরনো রীতি মেনেই অনুষ্ঠিত হবে অ্যাকাডেমি পুরস্কার বিতরণী। লস অ্যাঞ্জেলাসেই উদযাপিত হবে অস্কার। 

জানা যাচ্ছে আগামী বছরের  ২৫ এপ্রিল আয়োজিত হবে অনুষ্ঠানটি। আগামী বছর ৯ ফেব্রুয়ারি প্রকাশ করা হবে শর্ট লিস্টেড ছবির তালিকা। মার্চ মাসের ১৫ তারিখ প্রকাশিত হবে ফাইনাস প্রতিযোগীর তালিকা। অ্যাকাডেমি অফ মোশন আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সের এই সিদ্ধান্তে আপত্তি জানিয়ে সমালোচনা এখন তুঙ্গে। করোনা আবহে যেখানে সামাজিক দূরত্ব সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন সেখানে অনলাইনে অস্কারের মত এক অনুষ্ঠান অনলাইনে করাই উচিত ছিল। কোনও কারণে পরিস্থিতি সামলাতে না পারলে তখন এই সংগঠনকেই দায়ী করা হতে পারে। তবে কর্তৃপক্ষের কথায় সমস্ত নিয়মাবলী মেনেই অনুষ্ঠিত হবে অস্কার। 

আরও পড়ুনঃতিন মাস পর জামিন পেল রিয়ার ভাই শৌভিক, সুশান্তের মৃত্যু মামলায় মাদকচক্রে জড়ায় তাঁদের নাম

 

বিনোদন জগতে শ্যুটিংয়ের কাজ শুরু হলে অস্কারও অনুষ্ঠিত করাই যেতে পারে। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য অনুযায়ী, বাণিজ্যিক কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকতে পারে। অস্কারে চলচ্চিত্র নিয়ে যতখানি চর্চা হয়ে থাকে তেমনই চর্চা হয় রেড কার্পেট লুক নিয়ে। ফ্যাশন মহল প্রতিবারই রেড কার্পেট নিয়ে অত্যন্ত চিন্তিত থাকে। হলিউডের তাবড় তাবড় তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, জেনিফার লরেন্স, ব্র্যাড পিটের পাশাপাশি দেখা যায় ঐশ্বর্য রাই বচ্চন, প্রিয়ঙ্কা চোপড়া সহ অনেক ভারতীয় অভিনেতা, অভিনেত্রীকেও। তাঁরা যেহেতু এক একটি সংস্থার এনডর্সমেন্টের জন্য হাজির হন তা অস্কারের পক্ষে লাভজনক।