শনিবারা মাঝরাতে লা লিগায় মহারণ। মাদ্রিদ ডার্বি ঘিড়ে চড়ছে উন্মাদনার পারদ। পারফরম্যান্সের বিচারে দুই দলই এখন কার্যত এক জায়গায় দাঁড়িয়ে। রিয়াল ৬ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে যখন লিগের এক নম্বরে তখন ৬ ম্যাচে  ১৩ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে দিয়েগো সিমিওনের অ্যাটলেটিকো। তবে দুই দলের কোচই এখন রয়েছেন তুমুল চাপে। রিয়ালের পারফরম্যান্স নিয়ে জিদাকে ক্রমাগত সমালোচনা শুনতে হচ্ছে। সমর্থদের একটা বড় অংশ হোসে মোরিনহোকে কোচের পদে চাইছে। জিদানও জানেন আর দু’একটা খারাপ পারফরম্যান্স তাঁর কোচিং জীবনে একটা বড় প্রশ্ন তুলে দিতে পারে। চোট কাটিয়ে অ্যাটলেটিকোর বিরুদ্ধে মাঠে ফিরতে পারেন লুকা মদ্রিচ, এটা ভাল খবর জিদানের জন্য। তবে মার্সেলোর খেলা নিয়ে এখনও সংশয় কাটেনি।

আরও পড়ুন - পোগবা ও জোকোভিচকে চ্যালেঞ্জ করলেন ইব্রাহিমোভি

এদিকে রিয়ালের বিরুদ্ধে অ্যাটলেটিকোর জার্সিতে মাঠে নামা হচ্ছে না রিয়ালের প্রাক্তন ফুটবলার আলভারো মোরাত্তার। কার্ড সমস্যায় মাঠে নামতে পারবেন না তিনি। দিয়েগো সিমিওনেকে ভরসা দিচ্ছে ঘরের মাঠে দলের ডিফেন্সের পারফরম্যান্স। ঘরের মাঠে খেলা গত ১৫টি ম্যাচের ১১টিতে একটাও গোল হজম করেনি তারা। রিয়ালও গোলের জন্য ঝাঁপিয়ে পরবে এমন আশা করছেন না কেউ। তাই হাই স্কোরিং ম্যাচ হচ্ছে না। বরং কিছুটা বিরক্তিকর ফুটবল হতে পারে বলে মত ফুটবল পন্ডিতদের। 

আরও পড়ুন - মহিলা হোটেল কর্মীর সঙ্গে খারাপ ব্যবহারে অভিযোগ টিম ইন্ডিয়ার সাপোর্ট স্টাফ, ভুল পরিচয়ে সমস্যা, জানাল বোর্ড

রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে খুব একটা ভাল খেলতে পারে না সিমিওনের দল, বরং বার্নেবেউতে অনেক বেশি দাপুটে ফুটবল খেলে তারা। পরিসংখ্যান সেই কথাই বলছে। মরসুমের প্রথম মাদ্রিদ ডার্বি। কোনও দলই হারের মুখ দেখতে চাইবে না। ঘর সামলে আক্রমণের যাওয়ার প্রবণতায় কে জালে বল জড়াতে পারেন সেটাই দেখার অপেক্ষায় ফুটবল বিশ্ব। 

আরও পড়ুন - রেনবোকে হারিয়ে ইস্টবেঙ্গলকে পেছনে ফেলল পিয়ারলেস, লিগের ফয়সালা শেষ ম্যাচে