চলতি মরশুমটা খুব একটা সুবিধার যাচ্ছে না বার্সেলোনার। খেলোয়াড়দের চোট আঘাত থেকে শুরু করে অফ-ফর্ম, সবকিছুই চিন্তা বাড়াচ্ছে তাদের। এর মধ্যে মরশুমের মাঝপথেই আশানুরূপ ফল না দিতে পারায় ম্যানেজারের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল আর্নেস্তো ভালবার্ডে-কে। তার জায়গায় নতুন কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন কুয়েক সাটিয়েন। কিন্তু তার পরেও মেসিদের পারফরম্যান্সে বিশাল কোনও রদবদল আসেনি। কোপা-দেল-রে থেকে ছিটকে গেছে কাতালুনিয়ান জায়েন্টরা, চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও পারফরম্যান্স আহামরি নয়, যদিও এখনও তারা লিগ শীর্ষে রয়েছে। কিন্তু সেটা যতটা না তাদের নিজেদের জন্য, তার চেয়েও বেশি রিয়াল মাদ্রিদের ধারাবাহিকতার অভাবের জন্য। 

আরও পড়ুনঃদেউলিয়া হতে বসা ক্লাব কিনে নজির গড়লেন এই 'হটেস্ট ফুটবল এজেন্ট'

অনেকের মতে অতিরিক্ত মেসি নির্ভরতাই ভোগাচ্ছে বার্সাকে। মেসির পারফরম্যান্স যেদিন খারাপ হচ্ছে, বার্সাও সেইদিন ভুগছে। অন্য কোনও খেলোয়াড় সেই সময় নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারছেন না। তার মধ্যে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ কিছু খেলোয়াড়ের চোট। তাই শেষ কয়েক মরশুমের মত আসছে মরশুমের আগেও বেশ কিছু খেলোয়াড়কে সই করানোর পরিকল্পনা রয়েছে বার্সার। জুভেন্টাসের মিডফিল্ডার পিজানিক থেকে ইন্টার মিলানের ফরোয়ার্ড লাউতারো মার্টিনেজ অনেকের ওপরই নজর রয়েছে বার্সা ম্যানেজমেন্টের। সেই তালিকায় রয়েছে বর্তমানে আর্সেনাল ও একসময় রিয়াল মাদ্রিদে জিদানের তত্ত্বাবধানে খেলা মিডফিল্ডার ড্যানি সেবায়োস-ও। 

আরও পড়ুনঃমেসি-রোনাল্ডোর মতোই সাফল্য পাওয়ার ক্ষমতা তারও ছিল, দাবি স্নাইডারের

আরও পড়ুনঃকরোনার জন্য জারি নিয়ম ভেঙে নির্বাসিত ৬ ফুটবলার

চলতি মরশুমেই রিয়াল থেকে লোনে আর্সেনালে যোগ দিয়েছিলেন ড্যানি। রিয়ালে খেলার সুযোগ খুব একটা পাননি আগের মরশুমগুলিতে। আর্সেনালে গিয়েও খুব উল্লেখযোগ্য কিছু করে দেখাতে পারেননি তিনি। তাই তাকে রিয়াল মাদ্রিদ শেষ পর্যন্ত ছেড়েই দিতে পারে মরশুম শেষে এমনটা আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে তাকে তুলে মাঝমাঠের গভীরতা বাড়াতে চাইছে বার্সা। রিয়াল বেতিসে খেলার সময় সেবায়োস-এর কোচ ছিলেন বর্তমান বার্সা কোচ সাটিয়েন, যা এই সম্ভাবনাকে আরও উসকে দিয়েছে।