লা-লিগার শেষ ম্যাচে এসে দুর্দান্ত জয় পেল বার্সা। দুর্বল দিপর্তিভ অ্যালাভেস-কে তারা হারালো ৫-০ গোলে। জোড়া গোল করলেন বার্সা মহাতারকা লিওনেল মেসি। তাছাড়াও গোল করেছেন তরুন তারকা আনসু ফাতি। বাকি দুটি গোল করেছেন লুইস সুয়ারেজ এবং সাইড ব্যাক নেলসন সেমেডো। গোটা বার্সা দলই দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়েছে এই ম্যাচে। এই ম্যাচ খানিকটা স্বস্তি দেবে বার্সা কোচ কিকে সেটিয়েন-কে এবং মরশুমের বাকি অংশে খেলতে নামার আগে বার্সার আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। 

আরও পড়ুনঃশুধু ব্য়াটিংয়ে নয়,গাভাসকরের গানেও মুগ্ধ লতা মঙ্গেশকর

অপরদিকে ফুটবল ফেরার পর থেকে টানা ম্যাচ জিততে জিততে লিগ জয় নিশ্চিত করে নিয়েছিল মাদ্রিদ। কিন্তু লিগের শেষ ম্যাচে তারা জিতে ম্যাচ ছাড়তে পারলো না। লেগানেসের বিরুদ্ধে ম্যাচ ২-২ ফলে ড্র করে মাঠ ছাড়লো জিদানের ছেলেরা। র‍্যামোসের গোলে প্রথমে এগিয়ে গিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ, কিন্তু সমতা ফেরাতে সময় নেয়নি লেগানেস। দ্বিতীয়ার্ধে মার্কো অ্যাসেন্সিয়ো-র গোলে আবারও এগিয়ে যায় মাদ্রিদ। কিন্তু সেই লিডও দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। তবে এই ম্যাচের ফল নিয়ে বেশি চিন্তিত হতে নারাজ জিদান। 

আরও পড়ুনঃচিনে নিন বিশ্বের সব থেকে সেক্সিয়েস্ট ফুটবল রেফারিদের, যাদের রূপ ঝড় তোলে হৃদয়ে

আগস্টের প্রথম সপ্তাহের শেষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে নামতে দুই দলই। ম্যানচেস্টার সিটি-র বিরুদ্ধে নামছে রিয়াল। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে গেলে সিটি-কে হারাতে হবে ২-০ গোলে। পেপ গুয়ার্দিওয়ালার দলের ডিফেন্সের বিরুদ্ধে ২ গোল না করার কিছু নেই, কিন্তু র‍্যামোস হীন রিয়াল রক্ষণ ম্যান সিটির আক্রমণ-কে প্রতিহত করতে পারবে কিনা সেই নিয়ে চিন্তায় রয়েছে মাদ্রিদইস্তারা। 

আরও পড়ুনঃজেনে নিন কি কি কারণে মরশুমটা ভালো গেল না মেসির বার্সার

অপরদিকে বার্সেলোনা মাঠে নামবে নাপোলির বিরুদ্ধে। গাট্টুসোর কোচিংয়ে মরশুমের প্রথমভাগের ব্যর্থতা কাটিয়ে ফর্মে ফিরেছে নাপোলি। কোপা-ইতালিয়া জিতেছে তারা। তবে বার্সার কাছে রয়েছে অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা। প্রথম লেগে নাপোলির ঘরের মাঠের খেলাটি ১-১ গোলে জিতেছিল বার্সা। সেই অ্যাওয়ে গোলের দৌলতে খানিকটা হলেও এগিয়ে বার্সেলোনা। আর শেষ ম্যাচে বড় জয় তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে।