সন্তোষ ট্রফির জন্য এবার পর্যাপ্ত প্রস্তুতির সুযোগটাই পায়নি বাংলা দল। পূর্বাঞ্চলীয় যোগ্যতা নির্নায়ক পর্বের প্রথম ম্যাচের আগে বেশ সমস্যায় পরেছিলেন বাংলার কোচ রঞ্জন ভট্টাচার্য। য়ার ফল হিসেবে প্রথম ম্যাচে বিহারের কাছে হারতে হয়েছিল সন্তোষ ট্রফির সব থেকে সফল দলকে। প্রথম ম্যাচে বিহারের কাছে হারের পর অনেকেই বাংলা দল নিয়ে আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। 

আরও পড়ুন - মিনি ডার্বিতে মহমেডানকে হারাল ইস্টবেঙ্গল, লিগ শীর্ষে আলেহান্দ্রোর দল

কিন্তু ছবিটা বদলে গেল বৃহস্পতিবার। মূল পর্বে যাওয়ার লড়াইতে বাংলার শুধু ম্যাচটা জিতলেই চলত না। চার গোলের ব্যবধানে জিততে হত। কল্যাণী স্টেডিয়ামে তুমুল বৃষ্টির মধ্যেই ম্যাচ জিতলেন বাংলার ফুটবলাররা। আর শুধু জেতাই নয় ওড়িশাকে ৪-০ গোলে হারিয়ে মূল পর্বে পৌছে গেল রঞ্জন ভট্টাচার্যের দল। ম্যাচের প্রথমার্ধে অর্জুন টুডুর একমাত্র গোলে এগিয়ে ছিল বাংলা দল। 

আরও পড়ুন - মোদীর পরেই স্থান ধোনির, তাই বলছে সমীক্ষার রিপোর্ট

তবে দ্বিতীয়ার্ধে প্রতিপক্ষকে আরা ঘুড়ে দাঁড়ানোর সুযোগ দেয়নি রঞ্জন ভট্টাচার্যের দল। তিনটি গোল করে সন্তোষ ট্রফির মূল পর্বের দরজা খুলে ফেলে রঞ্জন ভট্টাচার্যের ছেলেরা। দুরন্ত ফুটবল খেলেন অর্জুন টুডু, ফরিদরা। ৯০ মিনিটের লড়াই শেষে খেলার ফল বাংলা ৪ ওড়িশা ০। বাংলার হয়ে জোড়া গোল করে নায়ক অর্জুন টুডু। এছাড়াও বাকি দুটি গোল করেন মহম্মদ ফরিদ ও সুরজিত শীল। এদিনের ম্যাচে বাংলার জয়ের পর গ্রুপে তিন দলেরই পয়েন্টা দাঁড়ায় তিন। কিন্তু গোল পার্থক্য ভালও থাকায় ম্যাচ জিতে নেয় বাংলা। গোটা ম্যাচে মাঠে থেকে দলকে উত্সাহ দেব আইএফএ সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। 

আরও পড়ুন - প্রধানমন্ত্রীকে দেখে অনুপ্রাণিত, আরও দুই ক্রীড়াবিদ যোগ দিলেন বিজেপিতে