করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক কাটিয়ে ধীরে ধীরে ফুটবলে ফিরছে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ। বিশেষ করে করোনা বিধ্বস্ত উইরোপের দেশগুলিও উদ্যোগ নিয়েছে ফুটবল শুরু করার। ১৬ মে থেকে শুরু হচ্ছে বুন্দেস লিগা। দ্রুত ফিরতে চলেছে লা লিগা, সিরি ও, প্রিমিয়ার লিগের মত বিশ্ব ফুটবলের জনপ্রিয় লিগুগুলি। এশিয়া মহাদেশেও কোরিয়া সহ বেশ কয়েকটি দেশ শুরু করেছে বা করতে চলেছে তাদের ঘরোয়া ফুটবল লিগ। করোনা পরিস্থিতি, প্লেয়ারদের ফিটনেস, ফুটবলের রোমাঞ্চ, উন্মাদনা, ব্যবসা সব দিক থেকে বিচার করে সম্প্রতি ওতাহিসাক চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ভাবে ফুটবল ম্যাচের মধ্যে তিনের বদলে পাঁচ জন পরিবর্ত ব্যবহার করা যাবে বলে অনুমতি দিয়েছে তারা। ফিফা অবশ্য নতুন নিয়ম প্রয়োগ করার বিষয়টি সম্পূর্ণ ভাবে ছেড়ে দিয়েছে প্রতিযোগিতার আয়োজকদের উপরে।

আরও পড়ুনঃবকেয়া বেতন না পেলে ফেডারেশনে যাওয়ার হুমকি মোহনবাগান ফুটবলারদের

করোনা পরবর্তী সময়ে পীরক্ষামূলকভাবে চালু করা ফিফার এই নিয়মকে স্বাগত জানিয়েছেন ভারতীয় ফুটবল লেজেন্ড ভাইচুং ভুটিয়া। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ভাইচুং বলেছেন, 'খুবই ভাল সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা। আধুনিক ফুটবলে আগের থেকে অনেক পরিবর্তন এসেছে। খেলার গতি আগেরর তুলনায় অনেক বেড়েছে। তিন জনের বদলে ৫ জন ফুবলারের পরিবর্তন হলে খেলার মান আরও বাড়বে।' ভাইচুঙের পাশাপাশি ফিফার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার আই এম বিজয়ন। তার মতে,'আমি মনে করি, নতুন নিয়ম চালু হলে খেলার গতি অনেক বাড়বে। কারণ, ক্লান্ত ফুটবলারের পরিবর্তে তরতাজা কাউকে নামানোর সুযোগ পাবেন কোচেরা। আমার মতে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত নয়, পাকাপাকি ভাবেই পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তন করার নিয়ম চালু করা উচিত ফিফার।'

আরও পড়ুনঃআধুনিক নিয়মে আরও ৪ হাজার রান বেশি করতাম,সচিনকে বললেন সৌরভ

আরও পড়ুনঃসন্দেশ ঝিঙ্গান ও বালা দেবীকে অর্জুন পুরষ্কারের জন্য মনোনীত করল এআইএফএফ

শুধু ভাইচুং বা আই এম বিজয়ন নয়, ফিফার নিয়মকে স্বাগত জানিয়েছেন,সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান শ্যাম থাপা। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন,'ফেডারেশনের পরের টেকনিক্যাল কমিটির সভায় আমি প্রস্তাব দেব ভারতীয় ফটবলেও পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তনের নিয়ম চালু করার। এখন মাঠে এগারো জন খেলে, রিজার্ভ বেঞ্চে সাত জন বসে থাকে। সুযোগ না-পেয়ে অনেকেই হতাশ হয়ে পড়ে। নতুন নিয়মের ফলে অনেক বেশি ফুটবলার খেলার সুযোগ পাবে।' ফিফার নয়া নিয়মকে মান্যতা দিয়েছে অনেক নামকরা ফুটবল খেলীয় দেশ। এবার দেখার বিষয় এটাই যে ভারতও সেই পথে হাঁটে কিনা। এআইএফএফের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছে ভারতীয় ফুটবলাররাও।