করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত গোটা পৃথিবী। ক্রীড়া বিশ্বেও থাবা ক্রমশ চওড়া করছে এই মারণ ভাইরাস। আক্রান্ত হচ্ছেন একাধিক ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব। করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়তেই স্বেছায় কোয়ারেন্টাইনে গিয়েছিলেন জুভেন্টাস ফুটবল দলের তারকা প্লেয়ার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। পর্যবেক্ষণে থাকার পাশাপাশি করোনা টেস্ট করেন সিআরসেভেন। তবে স্বস্তির খবর হল করোনায় আক্রান্ত হননি পর্তুগীজ তারকা।  করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে রোনাল্ডোর। 

আরও পড়ুনঃকরোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ,স্বস্তিতে নিউজিল্যান্ড পেস বোলার লকি ফার্গুসন

করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত গোটা ইতালি।  বাাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বন্ধ সমস্ত ধরনের স্পোর্টিং ইভেন্ট। মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন একাধিক তারকা প্লেয়ারও। যেই তালিকায় রয়েছেন জুভেন্টাস ফুটবল দলের ডিফেন্ডার ড্যানিয়েল রুগানি ও দলের অ্যাটাকিং লাইনের অন্যতম সেরা অস্ত্র আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো দিবালা। রুগানির আক্রান্ত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই নড়ে চড়ে বসে জুভেন্টাস ক্লাব। পর্যবক্ষণে পাঠানো হয় দলের অন্যান্য প্লেয়ার ও সাপোর্টিং স্টাফদের। আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন  ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোও।  তড়িঘড়ি ইতালি ছেড়ে মাদেরাইতে চলে যান সি আর সেভেন। সেখানে গিয়ে স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে চলে যান তিনি। কারণ দলের শেষ ম্যাচে রুগানির সঙ্গে সেলিব্রেশন করতে দেখা গিয়েছেল সিআর সেভেনকে। ড্রেসিং রুমেও অনেকক্ষণ সময় কাাটিয়েছিলেন দুজনে। সেকারণেই চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়ার পাশাপাশি নিজেকে গৃহবন্দী রাখেন ক্রিশ্চিয়ানো। কিন্তু দলের অপর সদস্য পাওলো দিবালার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর জানার পরই আরও আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন সি আর সেভেন। করোনা টেস্ট করানোরও সিদ্ধান্ত নেন তিনি। তবে স্বস্তির খবর হল পরীক্ষার পর রোনাল্ডোর শরীরে পাওয়া যায়নি করোনাভাইরাস। এই খবর নিশ্চিত করেন স্বয়ং পর্তুগীজ প্রেসিডেন্ট। যুক্তরাষ্ট্রের এক সমংবাদ মাধ্যমে পর্তুগীজ প্রসিডেন্ট বলেন, রোনাল্ডো কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার পর করোনা পরীক্ষা হলেও, তার দেহে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুনঃ ফাইনালে ৩-১ গোলে জয়, তৃতীয়বারের জন্য আইএসএল চ্যাম্পিয়ন এটিকে

আরও পড়ুনঃ স্থগিত হয়ে গেল আইলিগের ফিরতি ডার্বি, জানিয়ে দিল এআইএফএফ

 জুভেন্টাসের ড্যানিয়েল রুগানি ও পাওলো দিবালা ছাড়াও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আর্সেনাল কোচ মাইকেল আর্তেতা,  চেলসির উইঙ্গার ক্যালাম হাডসন-ওডোই, জার্মান ক্লাব হ্যানোভারের ডিফেন্ডার টিমো হুর্বাস। ফলে করোনা যেভাবে থাবা বসাচ্ছে ক্রীড়া বিশ্বে তাতে বাড়ছে উদ্বেগ। ক্রিকেটারদের মধ্যেও করোনা টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে অসি পেস বোলার কেন রিচার্ডসন ও কিউই পেস বোলার লকি ফার্গুসনের। এবার রোনাল্ডোর টেস্টি নিয়ে উদ্বেগে ছিলেন বিশ্ব জুড়ে রোনাল্ডো ভক্তরা।  রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় স্বস্তিতো রোনাল্ডো অনুগামীরাও।