কলকাতা লিগ তাঁর কাছে পরীক্ষার মঞ্চ। শুরুতে এই কথাই বলেছিলেন ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেহান্দ্রো মেনেন্দেজ গার্সিয়া। তবে লিগের শেষ বেলার এসে কিছুটা মত বদলে ফেলেছেন লাল হলুদ কোচ। হাতে আর দুটি ম্যাচ। ছয় পয়েন্ট আর বড় ব্যবধানে জয় লিগের খেতাব দিতে পারে লাল হলুদকে। তাই সুযোগটা আর হাতছাড়া করতে চাইছেন না আলেহান্দ্রো। মহমেডানের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্টের পাশাপাশি বড় ব্যবধানে জয়কেই পাখীর চোখ করছেন তিনি। লাল হলুদের স্প্যানিশ কোচের কথায় স্পষ্ট যুবভারতীতে বৃহস্পতিবার আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলবেন তারা। কিন্তু প্রথম দলে কারা থাকবেন সেটা ভাঙতে চাইলেন না। বরং বলে গেলেন তাঁর দলের সবাই তৈরি মাঠে নামার জন্য। 

আরও পড়ুন - যে দেশে মহিলাদের মাঠে ঢুকতে দেওয়া হয় না, সেই দেশে ইউরোপের দল খেলতে যাবে না, সিদ্ধান্ত উয়েফার বৈঠকে

অন্যদিকে টানা তিনটি ম্যাচ জিতে লিগের দৌড়ে রয়েছে মহদানের তৃতীয় প্রধান মহমেডান স্পোর্টিংও। ইস্টবেঙ্গলকে হারাতে পারলে তাদের সামনেও লিগ জয়ের রাস্তাটা খোলা থাকবে, তবে তাকিয়ে থাকতে হবে পিয়ারলেসের দিকে। তবে দীপেন্দু বিশ্বাস ফুটবলারদের ওপর কোনও চাপ দিতে চান না। বরং খোলা মনে খেলতে বলেছেন তীর্থঙ্করদের। বুধবারের অনুশীলনেও খোস মেজাজে পাওয়া গেল সাদা কোলা ফুটবলারদের। মোহনবাগানকে লিগের দৌড় থেকে ছিটকে দেওয়ার পর পিয়ারলেসকেও চাপে ফেলে দিয়েছে দীপেন্দু বিশ্বাসের দল। তাই আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে খেলতে নামছে মহমেডান স্পোর্টিং। 

আরও পড়ুন - অগ্নিপথের সংলাপে অমিতাভকে শুভেচ্ছা সচিনের

এখন লিগের শীর্ষে রয়েছে মহমেডান। ১০ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট তাদের। পেছনেই রয়েছে ইস্টবেঙ্গল ও পিয়ারলেস। ৯ ম্যাচে এই দুই দলই আছে ১৭ পয়েন্টে। গোল পার্থক্যে এগিয়ে আছে পিয়ারলেস। তাই মহমেডানের বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানে জয়টা মিনি ডার্বি তাই দুই দলের কাছেই তাই খুব গুরুত্বপূর্ণ। বৃহস্পতিবারের ম্যাচ কলকাতা লিগের ট্রফির গতিপথ অনেকটাই ঠিক করে দিতে পারে। 

আরও পড়ুন - সৌরভের কথা মতেই টেস্ট ওপেনার রোহিত, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু পরীক্ষা