ফিল ফডেন এবং রিয়াদ মাহারেজের জোড়া গোলে ফুটবল ফেরার পর নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও জয় তুলে নিল ম্যানচেস্টার সিটি। আগের ম্যাচে তারা আর্সেনালকে হারিয়েছিল ৩-০ গোলে। কাল রাতে পালা ছিল লিগ টেবিলে ১১ নম্বরে থাকা দল বার্নলির। পেপ গুয়ার্দিওয়ালার স্ট্র্যাটেজি মেনে তাদের ওপর দিয়ে বুলডোজার চালিয়ে দিলেন ম্যান সিটির ফুটবলাররা। ৫-০ গোলে প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দেন গুয়ার্দিওয়ালার ছেলেরা। ম্যাচে অপর একটি গোল করেন সিটির বুড়ো ঘোড়া দাভিদ সিলভা। 

আরও পড়ুনঃকীভাবে ভারতীয় দলের অধিনায়ক হয়েছিলেন সৌরভ,দু-দশক পর রহস্য ফাঁস

চোটের জন্য একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলারকে পাননি বার্নলি। তার সুবিধাটা সুদে-আসলে তুলে নেয় ম্যান সিটি। ম্যাচের ২২ মিনিট থেকে শুরু গোলের বন্যা। প্রথম গোলটি করেন একসময় কলকাতা কাঁপিয়ে যাওয়া ফিল ফডেন। ৪৩ মিনিটে ব্যাবধান বাড়ান রিয়াদ মাহারেজ। বিরতির আগেই আগুয়েরো কে বক্সের মধ্যে ফাউল করা হয়। আহত হয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন তিনি। তার বদলে মাঠে নামেন গ্যাব্রিয়েল জেসাস। ফের কবে আগুয়েরো মাঠে ফিরবেন তা নিয়ে রয়েছে প্রশ্নচিন্হ। অতিরিক্ত সময়ে ওই পেনাল্টি থেকেই পুনরায় গোল করেন মাহারেজ। দ্বিতীয়ার্ধ তে খেলা শুরু হওয়ার ৬ মিনিটের মধ্যে আবার গোল, এবার লক্ষ্যভেদ দাভিদ সিলভার। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় ও দলের পঞ্চম গোল করে বার্নলির কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দেন ফিল ফডেন। অসাধারণ খেলেছেন পর্তুগিজ তারকা বার্নার্ডো সিলভা। দুটি গোলের ক্ষেত্রে সহায়তা করেছেন তিনি। 

আরও পড়ুনঃজিতলো জুভেন্তাস, গোলে ফিরে নতুন রেকর্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর

আরও পড়ুনঃরণদেব বসুকে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে তুলনা করলেন অশোক দিন্দা

এই জয়ের ফলে নতুন রেকর্ড গড়ে ফেললো পেপ গুয়ার্দিওয়ালার ম্যান সিটি। ২০১৬-১৭ মরশুমে সিটির দায়িত্ব নিয়েছিলেন পেপ। তার পর থেকে মোট ১৭ বার লিগে ৫ বা তার বেশি গোল করেছে সিটি। এই সময় এত বার ইপিএলে ৫ গোল করতে পারেনি কোনও দল। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে লিভারপুল। তারা এই সময় মোট ৯ বার ৫ গোলের গন্ডি ছুঁয়েছে লিগে।