পাকাপাকিভাবে স্প্যানিশ জায়েন্ট রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ইতালিতে পাড়ি দিচ্ছেন মরক্কোর রাইট ব্যাক আশরাফ হাকিমি। আন্তোনিও কন্তের ইন্টার মিলানের হয়ে পরের মরশুমে অর্থাৎ ২০২০-২১ মরশুমে খেলতে দেখা যাবে। মাত্র ২১ বছর বয়সেই নিজের খেলার মাধ্যমে গোটা বিশ্বের নজর কেড়েছেন এই মূহুর্তে মরক্কোর পয়লা নম্বর ফুটবলার। তাই সুযোগ পাওয়া মাত্র কন্তের ইন্টার তাকে দলে নেওয়ার জন্য ৪০ মিলিয়ন ইউরোর খরচ করতে দুবার ভাবেনি। পাঁচ বছরের জন্য আশরাফের সাথে চুক্তি করেছে ইন্টার মিলান। 

আরও পড়ুনঃপদত্যাগের পরই শশাঙ্ক মনোহরকে বেনজিরভাবে আক্রমণ করলেন এন শ্রীনিবাসন

২০০৬ থেকে মাদ্রিদের একাডেমিতে এসেছিলেন আশরাফ। তার ইন্টার মিলানে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ক্লাব। স্পেনে জন্ম নেওয়া এই মরোক্কান ফুল ব্যাক শেষ দুটো মরশুম লোনে কাটিয়েছেন জার্মানির বিখ্যাত ক্লাব বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডে। তিন জনের ডিফেন্স ফর্মেশনেও এই সময় কার্যকরী দেখিয়েছে তাকে। এই জন্যই তাকে দলে ভেড়াতে ২ বার ভাবেননি আন্তোনিও কন্তে। তরুণ এই ফুটবলার বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডের হয়ে বেশ কিছু দুর্দান্ত গোল এবং গোলে সহায়তাও করেছেন। 

আরও পড়ুনঃসৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দল হারানোর ক্ষমতা রাখে বিরাট কোহলির দলকে

আরও পড়ুনঃবিশ্বকাপের মাঝেই স্ত্রীর সঙ্গে সঙ্গম উপভোগ,আলমারীতে বউ লুকিয়ে রাখতেন সাকলিন মুস্তাক

মাদ্রিদে না ফেরার কারণও দেখিয়েছেন আশরাফ। তিনি আশা করেছিলেন যে তাকে রিয়াল মাদ্রিদের প্রথম একাদশে নিয়মিত করা হোক। কিন্তু মাদ্রিদে হাকিমির পজিশনে রিয়াল মাদ্রিদে খেলে থাকেন স্পেনের এক নম্বর রাইট ব্যাক ড্যানি কার্ভাহাল। ফলে আশরাফের প্রথম একাদশে জায়গা সব ম্যাচে পাকা ছিলো না। বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডে তিনি যে ফুটবল খেলেছেন তারপর বেঞ্চে বসতে রাজি ছিলেন না তরুণ মরোক্কান।