শনিবার বার্সেলোনা রিয়াল সোসিদাদের বিরুদ্ধে ২-২ গোলে ম্যাচ ড্র করেছে। তাই রবিবার রিয়াল মাদ্রিদের সামেন লিগের শীর্ষ স্থানে উঠে আসার সুযোগ ছিল। কিন্তু ভ্যালেন্সিয়ার সঙ্গে তারা ড্র করে লিগের শীর্ষ স্থানে ওঠার সুযোগ হাতছাড়া করল। ১৮ তারিখ লা-লিগার সব থেকে বড় ম্যাচ। এল ক্লাসিকোর আগে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে ইনজুরি টাইমের গোলে মানরক্ষা করল জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ। লিগের ম্যাচে রবিবার রাতে যে দৃশ্য দেখা গেল সেটা সচরাচর দেখা যায় না। এক গোলে পিছিয়ে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ এক পয়েন্ট পেতে এতটাই মরিয়া হয়ে উঠেছিল যে কর্ণার কিকের সময় দলের গোলকিপার কুর্তোয়াও উঠে এলেন হেড করতে। উঠে আসাই নয়, হেড করলেন তিনি। সেই বল ভ্যালেন্সিয়া গোলকিপার বাঁচানোর পর ফিরতে বল জালে জড়িয়ে দেন বেঞ্জেমা। 
 
 

 

আরও পড়ুন - ম্যাচ অফিসিয়ালদের পিটিয়ে নির্বাসিত মুম্বাই সিটি এফসি, সঙ্গে দশ লক্ষ টাকা জরিমানও

খেলা ছিল ভ্যালেন্সিয়ার ঘরের মাঠে। ম্যাচের প্রথমার্ধ গোল শূন্য থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে গোল করে এগিয়ে যায় ভ্যালেন্সিয়া। ৭৮ মিনিটে গোল করে সোলের দলকে এগিয়ে দিলেন। কিন্তু যে ভাবে গোল খেল রিয়াল মাদ্রিদ সেটা কিছুটা হলেও চিন্তায় রাখবে জিদানকে। লিগের শীর্ষে ওঠার সুযোগ যে নেই সেটা তখনই বুঝে গিয়েছিলেন বেঞ্জেমারা। তাই এক পয়েন্ট পেয়ে বার্সেলোনার সঙ্গে অঙ্কের বিচারে এক জায়গায় থেকে এল ক্লাসিকোতে নামার দিকেই জোর দিলেন জিদান। কিন্তু ৯০ মিনিটে গোল শোধ করতে পারেনি তার দল। শেষ ইনজুরি টাইমে কুর্তোয়া-বেঞ্জেমা জুটি এক পয়েন্ট এন দিল রিয়াল মাদ্রিদকে। 

আরও পড়ুন - বুন্দেশলিগার আসরে ভারতীয় বংশোদ্ভূত ফুটবলার, খেললেন বার্য়ান মিউনিখের হয়ে

বুধবার এই মরসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো। অক্টোবরের ২৬ তারিখ খেলা হওয়ার কথা থাকলেও কাতালুনিয়া আন্দোলনের জেরে তখন ম্যাচ করা সম্ভব হয়নি। সেই ম্যাচ হবে বুধবার রাতে। বার্সেলোনা ও রিয়াল দুই দলই এখন ১৬ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়ে। বার্সেলোনা গোল পার্থক্যে কিছুটা এগিয়ে থাকায় শীর্ষে রয়েছে। এল ক্লাসিকোতে একটি দলের সামনে সুযোগ থেকবে কিছুটা এগিয়ে যাওয়ার। ফুবল মহলের মতে কাজটা কঠিন হবে জিদানের দলের জন্য। কারণ রিয়ালের তুলনায় বার্সা ভাল ফুটবল খেলছে। তবে ফুটবলার লড়ইয়ের পাশাপাশি মাঠের বাইরে আবার বিক্ষোভ আন্দোলনের হুঁশিয়ারি রয়েছে। 

আরও পড়ুন - খোঁজ পাওয়া গেল ভক্তের, সচিনের সঙ্গে দেখা করনোর উদ্যোগ হোটেল কতৃপক্ষের