করোনার থাবায় ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে ইউরোপের পরিস্থিতি। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। ইংল্যান্ডের ফুটবলেও থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। ইতিমধ্যেই অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে ইপিএল, লা লিগা, সিরি এ, ফরাসী লিগ, চ্যাম্পিয়নস লিগ সহ সমস্ত পুরুষ ও মহিলাদের টুর্নামেন্ট। তারপরও ফুটবল বিশ্বে বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন ইংলিশ ফুটবল ক্লাব লিভারপুলের কিংবদন্তী কেনি ডালগ্লিশ।  বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে তার শরীরের এখনও করোনার কোন উপসর্গ দেখা যায়নি। কেনি ডালগ্লিশের পরিবারের পক্ষ কিংবদন্তী ফুটবলারের করোনায় আক্রান্তের খবর নিশ্চিত করা হয়।

আরও পড়ুনঃফের করোনার থাবা ফুটবল বিশ্বে, আক্রান্ত বিশ্বকাপ জয়ী প্রাক্তন ব্রিটিশ ফুটবালর নর্ম্যান হান্টার

পরিবার জানায়, গত বুধবার ৬৯ বছর বয়সী ডালগ্লিশ অন্য জীবাণু সংক্রমণজনিত অসুস্থতায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। হাসপাতালে অ্যান্টিবায়োটিক ইঞ্জেকশন নিতে হচ্ছিল তাকে। তখন রুটিন পরীক্ষার অংশ হিসেবে তার করোনা পরীক্ষাও করা হয়। তখনই ডালগ্লিশের শরীরের করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব ধরা পড়ে। ডালগ্লিশের পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়, অপ্রত্যাশিতভাবে পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসে। তবে তার শরীরের এখনও কোন উপসর্গ দেখা দেয়নি। আপাতত হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন ডালগ্লিশ। চিকিৎসকরা সসর্বক্ষণ পর্যবেক্ষণে রেখেছেন তাকে।

আরও পড়ুনঃআগামী বছরও অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন, আশঙ্কা প্রকাশ করলেন খোদ আয়োজক কমিটির সিইও

আরও পড়ুনঃকরোনা যুদ্ধে ফের মানবিক উদ্যোগ সচিন তেন্ডুলকরের,৫ হাজার মানুষের খাওয়ার দায়িত্ব নিলেন মাস্টার ব্লাস্টারের

ফুটবল জগতে কেনি ডালগ্লিশ খেলোয়াড় হিসেবে যেমন সফল তেমন ম্যানেজার হিসেবেও সমীহ আদায় করেছেন।  স্কটল্যান্ডের ক্লাব সেল্টিকের হয়ে চারটি লিগ শিরোপা জয় করেছেন কেনি। করেছেন ১৬৭টি গোল। তারপর ১৯৭৭ সালে যোগ দেন ইংলিশ জায়ান্ট লিভারপুলে। এই ক্লাবটিতে তিনি মাঠে যেমন সফলতা পেয়েছেন তেমনই ডাউগআউটেও। খেলোয়ার হিসেবে লিভারপুলের হয়ে ১৬৯টি গোল করেছেন ও কোচ হিসেবে লিভারপুলকে আটবার লিগ শিরোপা এনে দিয়ে লিভারপুলের ইতিহাসের অন্যতম কিংবদন্তী হয়ে উঠেছেন তিনি। এছাড়া কোচ হিসেবে ব্ল্যাকবার্ন রোভার্সকেও লিগ শিরোপা জিতিয়েছেন কেনি ডালগ্লিশ। স্কটল্যান্ডের হয়ে দেশের জার্সিতেও ৩০টি গোল করেছেন  কেনি ডালগ্লিশ। কিংবদন্তী ফুটবলার ও কোচের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন ফুটবল বিশ্ব।