লা-লিগার খেতাবি লড়াই ফুরিয়ে যাচ্ছেনা এখনই। বুধবার রাতে এস্পানিয়োলের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিল মেসিরা। এই মরশুমে অবনমনের আওতায় থাকা দলগুলির মধ্যে অন্যতম হল কাতালুনিয়ান এই ক্লাবটি। অবনমন বাঁচাতে গেলে আজকের ম্যাচে জিততেই হত এস্পানিয়োলকে। তারা লড়াইও করেছিল দারুন। কিন্তু শেষপর্যন্ত লুইস সুয়ারেজের দ্বিতীয়ার্ধর গোলে ম্যাচ এবং তিন পয়েন্ট জিতে নেন সেটিয়েনের বার্সেলোনা। এই হারের ফলে ১৯৯৪ সালের পর প্রথমবার লা-লিগা থেকে অবনমন ঘটে গেল এস্পানিয়োলের। 

আরও পড়ুনঃবান্ধবীর জন্মদিনে বিশ্বকে উপহার,প্রথমবার মেয়ের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন উসেইন বোল্ট

পয়েন্ট পেলেও বার্সার খেলা দেখে সন্তুষ্ট নয় অনেক সমর্থকই। প্রথমার্ধ গোলশূন্য ভাবে শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়াতে তরুণ তারকা আনসু ফাতি-কে মাঠে নামান বার্সা কোচ সেটিয়েন। কিন্তু নামার পাঁচ মিনিটের মধ্যে লাল কার্ড থেকে বেরিয়ে যান তিনি। তার কিছুক্ষনের মধ্যেই লাল কার্ড দেখেন এস্পানিয়োলের লোজানো। তার কিছুক্ষণের মধ্যে গোল করেন সুয়ারেজ। এর পরে চেষ্টা করেও গোলমুখ খুলতে পারেনি কোন পক্ষই। 

আরও পড়ুনঃএশিয়া কাপ বাতিলের ঘোষণা,সম্মুখ সমরে সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায় ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

আরও পড়ুনঃ২০২১ এ রাজ্যে বিজেপির মুখ কি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, ডোনার বক্তব্য উস্কে দিল সেই জল্পনা

বার্সার জার্মান গোলকিপার টার স্টেগেনের অসাধারণ পারফরম্যান্সও এই জয়ের জন্য খানিকটা দায়ী। একের পর এক উল্লেখযোগ্য শট মেরে ও মাঝেমাঝেই কাউন্টার অ্যাটাকে উঠে আসা এস্পানিয়োলকে যে হেরে ফিরতে হয়েছে তার অন্যতম একটি কারণ। পরের ম্যাচে রিয়াল ভালোডলিড-এর মুখোমুখি হবে বার্সা। সেখানে কাল রাতের থেকে ভালো পারফরম্যান্স করতে চাইবে বার্সেলোনা।