সোমবার মলিনেক্স স্টেডিয়ামে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং উল্ভস এফসি-র মধ্যে ১-১ গোলে ম্যাচ ড্র হয়েছে। শুরু থেকেই ভালো খেলেছে ইউনাইটেড। খেলার প্রথমার্ধ থেকেই উল্ভস এফসিকে ছাপিয়ে গিয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। স্বাভাবিক ভাবেই সেদিনের ম্যাচের হিরো ছিলেন ম্যানচেস্টারের অ্যান্টনি মারটিয়াল। তবে উল্ভস-এর গোলকিপার রুই প্যাট্রিকিও ও তাঁর থেকে কোনও অংশে কম যাননি। পেনাল্টি রুখে প্রায় হেরে যাওয়ার হাত থেকে বাঁচিয়েছেন দলকে। 

শুরু থেকেই প্রতিপক্ষকে দমিয়ে রাখতে পারলেও গোল করা সম্ভব হয়নি ম্যানচেস্টারের। এমন পরিস্থিতিতে দেবদূতের মতো এগিয়ে এসেছিলেন অ্যান্টনি মারটিয়াল। পরবর্তী ২৭ মিনিটে উল্ভস এফসি-র বিরুদ্ধে একটি গোল করেন তিনি। প্রথমার্ধ পর্যন্ত ওই একটিই গোল ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ঝুলিতে। অন্যদিকে তখনও পর্যন্ত উল্ভসদের গোলের সংখ্যা ছিল শূন্য। হিসাবমত প্রথম হাফে এগিয়ে ছিল ম্যানচেস্টার। 

আরও পড়ুন-দলের ওপর হামলার আশঙ্কা, নিরাপত্তা বাড়ানো হল বিরাটদের

তবে খেলা কিছুটা ঘুরে যায় দ্বিতীয়ার্ধে। দ্বিতীয় হাফে অনেক বেশি সক্রিয়ভাবে দেখা যায় উল্ভসদের। আর ৫৫ মিনিটে একটি গোল করেন উল্ভস-এর রুবেন নেভেস। ফলে দুটি দলই সমান সংখ্যক গোল নিয়ে একই জায়গায় দাঁড়িয়েছিল। তবে উত্তেজনা বাড়ল ম্যাচের ৬৩ মিনিটে। যেখানে উল্ভস-এর কনর কোয়েডি ইউনাইটেডের পল পোগা-কে বক্সের ভিতরে ল্যাং মেরে ফাউল করেন। ফলে পেনাল্টি দেওয়া হয় ইউনাইটেডকে। তবে এত বড় সুযোগ পাওয়ার পরেও সেটিকে কাজে লাগাতে পারেনি উল্ভস এফসি। পেনাল্টিতে কোনোভাবেই উল্ভসদের সামনে গোল করতে পারেননি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। কারণ উল্ভস-এর রুই প্যাট্রিকিও অসাধারনভাবে বাঁচান ওই গোলটিকে। ফলে ১-১ গোলেই ড্র করে ম্যাচ শেষ করে দুই দল।