আইলিগের প্রস্তুতি হিসেবে বাংলাদেশে শেখ কামাল ইন্টারন্যাশনাল কাপে খেলতে গিয়েছে মোহানবাগান। কিন্তু প্রথম ম্যাচেই হার হজম করত হল কিভু ভিকুনার মোহনবাগানকে। লাওসের ইয়ং এলিফেন্টের বিরুদ্ধে এগিয়ে থেকেও ২-১ গোলে হারতে হল সবুজ মেরুণকে। ৮৭ মিনিটে পেনাল্টি পেয়েও সেটা গোলকিপারের গায়ে মেরে বসলেন বাগানের স্প্যানিশ মিডিও জোসেবা বেইতিয়া। 

আরও পড়ুন - চমকের আড়ালে লুকিয়ে আছে কঠিন বাস্তব, প্রশ্নের অন্ত নেই ভারতীয় ফুটবলে

এদিনের খেলার শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক ফুটবল শুরু করে সবুজ মেরুণ ফুটবলাররা। ১৭ মিনিটেই প্রথম গোল তুলে নেয় কিভুর দল। বেইতিয়ার কর্নার থেকে গোল করেন জুলেন কলিনাস। তবে গোল খেয়েও দমে যায়নি লাওসের তরুণ দল। একের এপর এক আক্রমণ চালায় তারা। বিরতিতে যাওয়ার আগেই গোল শোধ করে ইয়ং এলিফেন্ট। তবে এই গোলের সময় বাগানের বিদেশি ডিফেন্ডার ড্যানিয়েল সাইরাসের ভূমিকা নিয়ে কিছুটা প্রশ্ন উঠেতেই পারে।

আরও পড়ুন - চরম বিপদের মুখে ভারতের এই তরুণ ফুটবল প্রতিভা, কেরিয়ারে প্রশ্নচিহ্ন

দ্বিতীয়ার্ধে আবার গোল করার জন্য ঝাঁপায় কিভু ভিকুনার দল।  একের পর এক আক্রমণ করে মোহনবাগান। একাধিক সুযোগও তৈরি করে কিভুর ছেলেরা কিন্তু গোল পাওয়া যায়নি। দ্বিতীয়ার্ধে ভিপি সুয়ের ও পিএম ব্রিটোদের নামিয়েছিলেন কিভু। কিন্তু শেষ দশ মিনিটে খেলার ছবিটা বদলে গেল। ৮৭ মিনিটে লাওয়েসর দলে অধিনায়ক ভান্না, জুলেনকে বক্সে ফাউল করেন। দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় তাঁকে। পেনাল্টি পায় মোহনবাগান, কিন্তু বেইতিয়ার শট আটকে দেন ইয়ং এলিফেন্টের গোলকিপার।  সেই বল থেকেই কাউন্টার অ্যাটাকে যায় লাওসের তরুণ দল। সেই আক্রমণ থেকেই ম্যাচের জয় সূচক গোল তুলে নেয় ইয়ং এলিফেন্ট। জোড়া গোল করে ম্যাচ সেরা সোমজায়া। 

আরও পড়ুন - তিন ম্যাচে তিন জন ব্যাটসম্যানের ডাবল সেঞ্চুরি, নতুন নজির টিম ইন্ডিয়ার