ফের সংবাদ শিরোনামে নেইমারের মা তার প্রেমিক টিয়াগো ও খোদ নেইমার।  তবে এবার নেইমারের মায়ের প্রেমের রসায়ন নিয়ে নয়,এবার টিয়াগোর বিরুদ্ধে সমকামিতার অভিযোগ এন নিয়ে কটাক্ষ করায় পুলিসি ঝামেলায় জড়ালেন পিএসজি তারকা। গত এপ্রিল মাসেই নাদিন নিজের ব্যক্তিগত জীবনের কথা ফাঁস করেন নেটদুনিয়ায়। জানান, টিয়াগোর সঙ্গে ডেটিং করছেন তিনি। যিনি গেমারের পাশাপাশি মডেলিংও করেন। দুজনের ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন নাদিন। মুহূর্তের মধ্যে যা ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়। তবে নিজের থেকে ৬ বছরের ছোট মায়ের প্রেমিককে নিয়ে কোনও সমস্যা ছিল না নেইমারের।

আরও পড়ুনঃবিরাট কোহলির সঙ্গে তুলনা নিয়ে মুখ খুললেন বাবর আজম,কী বললেন পাক তারকা

সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। নতুন সম্পর্ক বেশ চুটিয়ে উপভোগ ও করছিলেন নেইমারের মা নাদিন ও টিয়াগো। কিন্তু সম্প্রতি নেইমার জানতে পারেন,
তাঁর মা ও টিয়াগোর সঙ্গে বেশ বড় মাপের ঝামেলা হয়। ঝামেলার কারণ সম্পর্কে কিছুই অবশ্য জানা যায়নি। কিন্তু ঝামেলা এমন পর্যায় পৌছয় যে টিয়াগোকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। সেই প্রসঙ্গেই গেমিং সাইডে বন্ধুদের সঙ্গে আলোচনা করতে গিয়ে নেইমার বলেন, টিয়াগো উভকামী। আর তখনই সমকামীদের নিয়ে কটাক্ষ শোনা যায় নেইমারের মুখে। যেখানে তিনি সমকামী ও সমকামিতা নিয়ে কটাক্ষ করেছেন। সমকামীদের নিয়ে হাসাহাসিও করেছেন। 

আরও পড়ুনঃঅবসর নেওয়ার এক বছর পরেও ভক্তদের মনে একইভাবে রয়েছেন যুবরাজ সিং

আরও পড়ুনঃযুবরাজের অবসরের প্রথম বছরে আবেগঘন বার্তা মাস্টার ব্লাস্টারের

নেইমারের সেই অডিও টেপ ফাঁস হওয়ার পরই  নেইমারের প্রতি ক্ষোভ উগরে দেন সমাজসেবীরা। তারকা স্ট্রাইকার ও তাঁর বন্ধুদের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক অভিযোগ দায়ের করার পরিকল্পনা করছেন বলেও জানান সমকমী সমর্থনকারী সমাজকর্মী অ্যাগ্রিপিনো। এদিকে সাও পাওলোর প্রসিকিউটর অফিসের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যেই তারা নেইমারের বিরুদ্ধে সমকামিতা নিয়ে কটাক্ষের অভিযোগ পেয়েছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আআসার পরই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ফুটবল বিশ্বে। ব্রাজিল জুড়ে সমকমী সমর্থনকারী সমাজকর্মী নেইমারের বিরুদ্ধে ক্ষোভের আগুনে ফুঁসছেন। যদিও ঝামেলায় জড়ানোর পর এবিষয়ে কোনও মুখ খোলেননি নেইমার।