করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে জয়ী হয়েছিলেন জুভেন্তাস ও আর্জেন্তাইন তারকা পাওলো দিবালা। শুধু দিবালাই নয়, কোভিড ১৯ থেকে সংক্রমণ মুক্ত হয়েছিলেন দিবালার বান্ধবী সাবাতিনিও। সুস্থ হয়ে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সেই সব ভয়ংকর দিনগুলির অভিজ্ঞতা একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন দিবালা ও তার বান্ধবী। কিন্তু সুখ বা স্বস্তি বেশি দিন স্থায়ী হল না আর্জান্তাইন তারকা ও তার বান্ধবীর। ফের মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন পাওলো দিবালা ও তার বান্ধবী সাবাতিনি।

আরও পড়ুনঃসমস্ত বিধিনিষেধ উঠে গেলেই আইপিএল আয়োজন করা উচিত,বললেন সঞ্জয় মঞ্জরেকর

দ্বিতীয়বার আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছেন দিবালার বান্ধবী সাবাতিনি। একটি ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমকে সাবাতিনি জানিয়েছেন, সুস্থ হয়ে ওঠার তিনদিনের মাথায় তিনি ও দিবালা ফের করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ২১ মার্চ দিবালা ও তাঁর বান্ধবীর শরীরে জীবাণু আছে বলে জানা যায়। জানা গিয়েছে, তিনদিন আগে দিবালা ও তাঁর বান্ধবীর টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। তিনদিন বাদে টেস্টে আবার কোভিড ১৯ পজিটিভ এসেছে তাঁদের। প্রথমবার যখন তারা আক্রান্ত হন তখন তথ্য গোপনেপ অভিযোগ উঠেছিল জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে। পড়ে জানাজানি হয়ে যাওয়ায় দিবাল নিজেই ট্যুইট করে করে তার ও সাবাতিনির করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছিলেন। মাতুইদি ও রুগানির পর তৃতীয় জুভেন্তাস তারকা হিসেবে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন দিবালা। তারপর ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন দিবালা। অনুশীলনও শুরু করে দিয়েছিলেন আর্জেন্টাইন তারকা। 

আরও পড়ুনঃঘরবন্দি অবস্থায় বান্ধবী জর্জিনাকে দিয়ে চুল কাটালেন রোনাল্ডো, ভাইরাল ভিডিও

আরও পড়ুনঃনিজের পছন্দের ব্যাটিং পার্টনারের নাম জানালেন কোহলি

দ্বিতীয়বার দিবালা ও তার বান্ধবী করোনা আক্রান্ত হওয়ায়, বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জুভেন্তাস কর্তৃপক্ষ। সেরে ওঠার পর আবার কী করে করোনা ভাইরাস টেস্ট পজিটিভ হলেন তিনি তা মাথায় ঢুকছে না কারও। দিবালার বান্ধবী সাবাতিনি জানিয়েছেন, করোনামুক্ত হওয়ার পরও চিন্তামুক্ত হওয়া যাবে না। কেউ যদি ভাবে যে সুস্থ হওয়া মানেই বিপদ নেই তাহলে ভুল। সুস্থ হয়ে ওঠার পরও নমুনা পরীক্ষা করাতে হবে। ১০০ শতাংশ সুস্থ হয়ে গেলেও টেস্ট করা ছাড়া উপায় নেই। তবে সমস্যা হলেও শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়নি বলে জানিয়েছেন সাবাতিনি। দিবালার ফের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে চিন্তিত জুভেন্তাস ক্লাব ও আর্জেন্টিনা। আপাতত ফের ঘরবন্দি অবস্থায় চিতিৎসা চলছে দিবালা ও তার বান্ধবীর। চিকিৎসতকরা পর্যবেক্ষণে রেখেছেন তাদের।