আজ ফিরছে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। মার্চ মাসের শুরুতে কিছু শেষ ষোলোর পর্বের খেলা বাকি থাকা সত্ত্বেও ইউয়েফা কে বাধ্য হয়েই প্রতিযোগিতাটি থামিয়ে দিতে হয় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায়। তারপর সিদ্ধান্ত হয় সমস্ত ঘরোয়া লিগ শেষ হলে ফিরবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। প্রতিযোগিতাটির শেষ ষোলো পর্ব কোনওভাবে শেষ করে কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমি ফাইনাল গুলি একটি মাত্র ম্যাচের হবে এই সিদ্ধান্তও জানিয়ে দেয় ইউয়েফা। একটি নিরপেক্ষ ভেন্যু তে ম্যাচ আয়োজনের কথা ভেবে ইউয়েফা শেষ পর্যন্ত ঠিক করে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ফাইনাল অবধি সব খেলা হবে পর্তুগালে। কারণ পর্তুগালের কোনও দল এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নক-আউট পর্বে উঠতে পারেনি। ফলে হোম ভেন্যুর সুবিধা নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না কোনও দল। তা ছাড়া ইউরোপীয় দেশগুলির মধ্যে পর্তুগালে করোনা সংক্রমণের সংখ্যাও কম। তবে শেষ ষোলোর বাকি খেলাগুলি হবে পূর্বনির্ধারিত ভেন্যুতেই, যা শুরু হচ্ছে আজ। 

আরও পড়ুনঃকরোনা আক্রান্ত হয়েছেন ব্রায়ান লারা, আসল সত্যিটা জানালেন ক্রিকেটের রাজপুত্র

হাইভোল্টেজ ম্যাচে আজ মুখোমুখি রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার সিটি। ঘরের মাঠে প্রথম পর্বের খেলায় ২-১ গোলে হারতে হয়েছিল রিয়ালকে। পেপ গুয়ার্দিওয়ালা টেক্কা দিয়েছিলেন জিনেদিন জিদান-কে। এই মুহুর্তে সিটির হাতে রয়েছে দুটি অ্যাওয়ে গোলের এডভান্টেজ। রিয়ালের সমস্যা আরও বেশি কারণ আগের ম্যাচে লাল কার্ড দেখায় দলে থাকবেন না অধিনায়ক সের্জিও র‍্যামোস। এদিকে কোয়ার্টারে যেতে হলে ম্যান সিটি কে অন্তত দুই গোলে হারাতে হবে বেনজেমাদের। এইরকম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে র‍্যামোসের না থাকা চিন্তায় রাখবে জিনেদিন জিদান-কে। 

আরও পড়ুনঃআরও ২ বছরের জন্য এটিকে-মোহনবাগানেই থাকছেন এডু গার্সিয়া

আরও পড়ুনঃম্যানচেস্টার ছেড়ে মিলানেই স্থায়ীভাবে থাকছেন আলেক্সিস স‍্যানচেজ

অপরদিকে ঘরোয়া মরশুম খুব একটা ভালো কাটেনি সিটির। টানা দুই মরশুম লিগ জেতার পর এবার লিগ খোয়াতে হয়েছে লিভারপুলের কাছে। মরশুমে ট্রফি বলতে শুধু লিগ কাপ। এফ.এ কাপের সেমিতেও হারতে হয়েছে আর্সেনালের কাছে। ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভালো কিছু করে দেখাতে মরিয়া পেপ গুয়ার্দিওয়ালার দল। এইরকম পরিস্থিতি থেকে কিছুতেই কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট হাতছাড়া করতে চাইবেন না পেপ।