১৭ ই জুন থেকে ফিরেছে ইপিএল। ইপিএলের ফেরা মানেই প্রতি সপ্তাহে ফুটবল ভক্তদের জন্য আকর্ষণীয় কিছু ম্যাচ। সেই নিয়ম মেনেই ভারতীয় সময় রাত ১২.৪৫ এ মাঠে নেমেছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দুই বড় দল টট‍্যেনহ‍্যাম হটস্পার এবং ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ৫ ই ডিসেম্বর দুই দলের মধ্যে লিগের প্রথম সাক্ষাতে হারতে হয়েছিল স্পার্সদের। লকডাউনের আগে মরশুমের প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে নতুন দায়িত্ব নেওয়া জোসে মোরিনহো-র নেতৃত্বে ইউরোপা লিগের যোগ্যতা অর্জনের জন্য লড়াই চালাচ্ছিল টট‍্যেনহ‍্যাম। আর অপর দিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যোগ্যতা অর্জনের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমেছিল রেড ডেভিলসরা। 

আরও পড়ুনঃসেভিয়া বাঁধা টপকাতে ব্যর্থ মেসিরা, ঘাড়ের ওপর নিশ্বাস রিয়াল মাদ্রিদের

প্রথমার্ধে দাপট দেখালেও গোলমুখ খুলতে পারেনি ম্যান ইউ। মোরিনহো-র স্ট্র্যাটেজি অনুযায়ী ডিফেন্সিভ খেলে কাউন্টার অ্যাটাকের সুযোগ খুঁজতে থাকে স্পার্স ব্রিগেড। ম্যাচের ২৭ মিনিটে স্পার্স গোলরক্ষক হুগো লরিসের গোল-কিক ধরে স্টিভেন বার্গউইন-কে বল বাড়ান সার্জি আউরিয়র। দুজন ডিফেন্ডার কে কাটিয়ে গোলে গোলার মতো শট নেন বার্গউইন। শটের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে হাত লাগিয়েও তা আটকাতে ব্যর্থ হন ম্যান ইউ গোলরক্ষক দাভিদ দি-গিয়া। প্রথমার্ধ ১ গোলে এগিয়েই শেষ করে স্পার্স। 

আরও পড়ুনঃআন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের দিনে নস্টালজিক সৌরভ,ফিরে দেখা সেই ঐতিহাসিক ইনিংস

আরও পড়ুনঃফর্মেই রয়েছেন শ্রীসন্থ,শুধু ২২ গজে ফেরার অপেক্ষা

দ্বিতীয়ার্ধে ফ্রেড কে তুলে মাঝমাঠে পোগবাকে নামান ম্যান ইউ কোচ ওলে গানার সলশায়ার। ৮১ মিনিটে পোগবার ড্রিবলিংয়ে ঠকে গিয়ে পেনাল্টি বক্সে তাকে নিয়ম-বহির্ভূত ভাবে বাধা দেন এরিক ডায়ার। পেনাল্টি পায় ইউনাইটেড। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি নতুন ম্যান ইউ তারকা ব্রুনো ফার্নান্দেজ। হুগো লরিস-কে ভুল দিকে পাঠিয়ে বাঁ দিকে নিচু শটে ইউনাইটেড-কে সমতায় ফেরান তিনি। শেষপর্যন্ত ১-১ গোলেই শেষ হয় গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি। ভবিষ্যতে ব্রুনো ফার্নান্দেজ এবং পোগবার জুটি ম্যান ইউ কে আরও  অনেকবার এইরকম পরিস্থিতি থেকে বাঁচবে এমনটাই আশা করবেন ম্যান ইউ সমর্থকরা।