১১ তারিখ মাঠে ফিরেছে স্প্য়ানিশ লা লিগা। ইতিমধ্যে হয়ে গিয়েছে তিনটি ম্যাচ। কিন্তু ফুটবল বিশ্বের অপেক্ষা ছিল সেই মাহেন্দ্রক্ষণের। অবশেষে আজ মধ্যরাতে হতে চলেছে সব প্রতীক্ষার অবসান। করোনা বা লকডাউন পরবর্তী সময়ে বল পায়ে মাঠে নামতে চলেছেন আধুনিক ফুটবলের ম্যাজেশিয়ান লিওনেল মেসি। মেসির পায়ে যাদু দেখতে মুখিয়ে রয়েছেন বিশ্ব জুড়ে তার কোটি কোটি ভক্তরা। ঠিক ৯৭ দিন পরে লিয়োনেল মেসিকে আবার বার্সেলোনার জার্সিতে লা লিগায় খেলতে দেখা যাবে। আজ মায়োরকার বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচ দিয়ে ফের লা লিগা অভিযান শুরু করতে চলেছে কোচ কিকে সোতিয়েনের বার্সেলোনা। একইসঙ্গে নয়া অভিযান শুরু করতে চলেছেন ফুটবলের রাজপুত্রও।

 

 

আরও পড়ুনঃপ্রত্যাবর্তনে পেনাল্টি মিস রোনাল্ডোর,অ্যাওয়ে গোলের ভিত্তিতে ফাইনালে জুভেন্টাস

মায়োরকা বার্সার তুলনায় দুর্বল প্রতিপক্ষ হলেও, প্রত্যাবর্তনের ম্যাচকে কোনওভাবেই হালকাভাবে নিতে নারাজ বার্সা কোচ। জয় দিয়ে শুরু করতে মরিয়া বার্সার মেসি,সুয়ারেজ, গ্রিজম্য়ানরাও। কারণ লা লিগায় খেতাবের দৌড়ে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে। বার্সেলোনার ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট। সমসংখ্যক ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের ৫৬। জ়িনেদিন জ়িদানের ক্লাব কার্যত মেসিদের ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে। ফলে মায়োরকার বিরুদ্ধে কোনও রকম অঘটন ঘটলেই, রিয়ালের কাছে সুযোগগ চলে আসবে এগিয়ে যাওয়ার। তাই লিগ টেবিলের প্রথম স্থান অটুট রাখার জন্য পূ্র্ণ শক্তির দলই নামাতে চলেছে বার্সেলোনা।  মেসির পর সুয়ারেজ ফিট হয়ে যাওয়ায় স্বস্তি ফিরেছে বার্সা শিবিরে। তবে ডিফেন্সে ক্লিমেন্ট লেংলেটকে শনিবারের ম্যাচে সাসপেনশনের জন্য পাচ্ছে না বার্সা। বদলে জেরার্ড পিকের সঙ্গে শুরু করার কথা ফরাসি ডিফেন্ডার স্যামুয়েল উমতিতির। প্রোটোকল ভেঙে মায়োর্কার বিরুদ্ধে নেই রাইট-ব্যাক নেলসন সেমেদো। পরিবর্তে সার্জি রবার্তোকেই একাদশে নিয়ে শুরু করবেন সেতিয়েন। লেফটব্যাকে জর্ডি আলবা। সুয়ারেজের পিছনে মেসির সঙ্গী আতোয়াঁ গ্রিজম্যান। মাঝমাঠের দায়িত্বে থাকছেন সার্জিও বুসকেটস, ডি জং এবং ইভান রাকিটিচ। অনুশীলনেও বেশ ফুরফুরে ও আত্মবিশ্বাসী দেখিয়েছে বার্সাকে। ৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেই মাঠ ছাড়ার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী বার্সা শিবির।

 

 

আরও পড়ুনঃআমফানে ক্ষতিগ্রস্ত ১০ হাজার পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন সৌরভ

আরও পড়ুনঃশতবর্ষে অভিনব উদ্যোগ ইষ্টবেঙ্গলের,সমর্থকদের জন্য স্য়ানিটাইজার আনছে ক্লাব

তবে এই ম্যাচে ফুটবল বিশ্বের নজর যে মেসির উপরই থাকবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। ইতালিতে প্রত্যাবর্তন খুব একটা সুখের হয়নি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। পেনাল্টি মিস করেছেন পর্তুগীজ তারকা। ফিটনেস থাকলেও,দীর্ঘ বিরতির পর ম্যাচে ফিরে পারফর্ম করা যে খুব একটা সহজ নয় তা প্রমাণ হয়ে গিয়েছে জুভেন্টাস ও এসি মিলান ম্যাচে রোনাল্ডোর পারফরমেন্স দেখে। তাই মেসির পায়ের ফুটবল জাদুতে কোনও ভাবে থাবা বসাতে পেরেছে কি না করোনার লকডাউন তা দেখার অপেক্ষায় ফুটবল বিশ্ব। মেসি এ বারও লিগের ২২টি ম্যাচে ১৯ গোল করেছেন, করিয়েছেন ১২টি। প্রত্যাবর্তনেও মেসি ম্যাজিক অব্যাহত থাকার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী বিশ্ব জুড়ে মেসি ভক্তরা।