সোমবার প্রিমিয়ার লিগে নর্থ লন্ডন ডার্বিতে নেমেছিল টটেনহ্যাম ও আর্সেনাল। ম্য়চে আর্সেনালকে ২-১ গোলে হারায় স্পার্শরা। ম্যাচে ৯০ মিনিটই মাঠে ছিলেন টটেনহ্যামের ডিফেন্ডার সার্জ অরিয়র। ডার্বি জয়ে দলে রক্ষণে দাড়িয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও নিয়েছিলেন। ভেবেছিলেন হয়তো ম্য়াচ শেষে ডার্বি জয়ের আনন্দও উপভোগ করবেন। কিন্তু তখনও জানতেন সার্জ ম্যাচ শেষে তার জন্য অপেক্ষা করে রয়েছে চরম এক দুঃসংবাদ। ম্যাচ শেষেই জানতে পারেন দুষ্কৃতীদের গুলিতে নিহত হয়েছে তার ভাই ক্রিস্টোফার অরিয়ক। মর্মান্তি দুঘটনাটি ঘটেছে ফ্রান্সের তুলুজ শহরের পশ্চিম অংশে।

আরও পড়ুনঃজার্মানিতে ছেলেদের ক্রিকেট লিগে দাপিয়ে খেলছেন ভারতীয় কন্যা,অনন্য নজির বেঙ্গালুরুর শারণ্যা সদারঙ্গানির

জানা গিয়েছে,তুলুজ শহরের পশ্চিম অংশে একটি নাইট ক্লাবের বাইরে দাঁড়িয়েছিলেন ক্রিস্টোফার অরিয়র। সেই সংয় হঠাতই দুষ্কৃতীরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি করে। ক্রিস্টোফারের তলপেটে দুটি গুলি লাগে। গুলি লাগার পরই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ক্রিস্টোফার।ঘটনাস্থলে পুলিস পৌছানোর আগেই চম্পট দেন দুষ্কৃতীরা। ক্রিস্টোফারতে বাঁচাতেও এগিয়ে আসেনি স্থানীয়রা। পুলিস গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও, ক্রিস্টোফারকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।  ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে দোষীদের খোঁজে তল্লাশি চালাতে প্রত্যক্ষদর্শীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়েছে। 

 

আরও পড়ুনঃছবিতে ফিরে দেখা লকডাউন পরবর্তী প্রথম আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলি

আরও পড়ুনঃকরোনার কারণে বাতিল অনুষ্ঠান,ঘোষণা করা হল মোহনবাগান রত্নের তালিকা

ভাইয়ের মৃত্যু খবর পেয়েই শোকে ভেঙে পড়েন সার্জ অরিয়র। অরিয়রের দুঃখ ভাগ করে নিয়েছে তাঁর ক্লাব। এক শোকবার্তায় টটেনহ্যাম হটস্পার জানিয়েছে, ‘সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের সত্যতা স্বীকার করে ক্লাব কর্তৃপক্ষ জানাচ্ছে সার্জ অরিয়রের ভাই আজ সকালে আমাদের ছেড়ে চলে গিয়েছেন। ঘটনায় ক্লাব গভীরভাবে শোকাহত। আমরা কঠিন সময় সার্জের পাশে আছি। ক্লাবের প্রত্যেক সদস্য সার্জ এবং তাঁর পরিবারের জন্য সমব্যথী। তাঁদের প্রতি আমাদের সমবেদনা রইল।’ ঘটনার দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সার্জ অরিয়র। এই ঘটনায় শোকস্তব্ধ ফুটবল মহলও।