112

দুর্গা পুজোর সময় কলকাতায় থাকলে পরিবারের সঙ্গেই পুজো কাটান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। গতবারও পরিবারের সঙ্গে পুজোর আনন্দ উপভোগ করেছিলেন তিনি।

Subscribe to get breaking news alerts

212

সারা বছর নানা ব্যস্ততার কারণে পরিবারকে সময় দিতে না পারলেও, গতবার পুজোর দিনগুলিতে পুরোপুরি 'ফ্যামিলি ম্যান' হয়ে যান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট।
 

312

এছাড়া বেহালার ঐতিহ্যশালী পুজোগুলির মধ্যে অন্যতম হল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়ির পুজো। নিয়ম-রীতি মেনে প্রতিবারের মত এই পুজোয় আনন্দ সহকারে অংশ নিয়েছিল গোটা গঙ্গোপাধ্যায় পরিবার। 

412

বিগ্রহে খুব জাঁকজমক না থাকলেও, সৌরভের বাড়ির পুজোর আন্তরিকতাটাই আসল। অষ্টমী পুজোর দিন এখানে কুমারী পুজো হয়। সকলেই অংশ নিয়েছিলেন তাতে। অষ্টমীতে বরিশা প্লেয়ারস কর্নারের পুজো মন্ডপে  সপরিবারে অঞ্জলি দিয়েছিলেন সৌরভ।

512

পুজোর কটা দিন একেবারেই যে ব্যস্ততা থাকেনা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের তেমনটা নয়।  নিজেরে পাড়ার পুজো ছাড়াও বেহালা সহ বেশ কয়েকটি পুজোর উদ্বোধন করেছিলেন সৌরভ গতবার।
 

612

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় যে ভাল ঢাক বাজান তা আমাদের সকলেরই জানা। গতবারও পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে ঢাক বাজিয়ে সকলের মন জয় করেছিলেন তিনি। 
 

712

স্ত্রী ডোনা গঙ্গোপাধ্যায় ও মেয়ে সানাকে নিয়ে ঠাকুর দেখতেও বেরিয়েছিললেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পরিবারকে নিয়ে বেহালা সহ বেশ কিছু ঠাকুর দেখেছিলেন তারা।
 

812

ঠাকুর দেখতে যাওয়া হোক ও আর উদ্বোধন অনুষ্ঠান, সৌরভ যাবেন আর ভক্তরা তাকে ঘিরে ধরবে না তা আবার হয় নাকি। গতবারও ভক্তরা তাকে ঘিরে ধরে সেলফি তোলার আবেদন জানান। ভক্তদের ইচ্ছে পূরণ করেছিলেন সকলের প্রিয় দাদা।
 

912

ঠাকুর দেখতে গিয়ে স্ত্রী ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গেও একান্ত মুহূর্তে পাওয়া যায় সৌরভকে। দুজন একসঙ্গে ছবিও তোলেন। যা খুব পছন্দ করেছিলেন সকলেই। 
 

1012

পুজোর কদিন বাড়িতে জমিয়ে চলে খাওয়া দাওয়া। তাই এইসময়টায় ডায়েট না মেনে মন মত জমিয়ে খেতেই পছন্দ করেন বেহালার বাঁ-হাতি।
 

1112

বিসজর্নের দিনও খুবই আনন্দ করেছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সকলের সঙ্গে বাজনার তালে কোমড় দোলাতেও দেখা গিয়েছিল প্রিন্স অফ ক্যালকাটাকে।
 

1212

তবে এবারের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা। করোনা আবহে ঠাকুর দেখাটা অত্যন্ত ঝুঁকি সাপেক্ষ ব্যাপার। তাই সকলকে সচেতন থাকার ও সুস্থ থাকার আবেদন জানিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।