112

মাঠের বাইরে ক্রিস গেইলকে সবসময়ই পার্টি করতে দেখা যায়। ২০১২ সালের টি২০ বিশ্বকাপের সময়, শ্রীলঙ্কায় তাঁর হোটেলের ঘর থেকে তিন সন্দেহভাজন ব্রিটিশ যুবতীকে আপত্তিজনক অবস্থায় পাওয়া যায়। মনে করা হয়, তাদের হানিট্র্যাপের কারণে ব্যবহার করেছিল বুকিরা। তবে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের দেহরক্ষীরা তাদের ধরে স্থানীয় পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছিল।  গেইলও সেই যাত্রা বেঁচে গিয়েছিলেন। 
 

212

তারপরও গেইলের 'পার্টি অ্যানিম্য়াল' সত্ত্বা যায়নি। ৪ বছর পর বিশ্বকাপের আসর বসেছিল ভারতে। মুম্বইয়ের ওয়াঙ্খেড়ে স্টেডিয়ামে ইংল্যান্জের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ ছিল ওয়েস্টইন্ডিজের। তার ঠিক দুদিন আগের রাতেই তাঁকে মুম্বইয়ের এক হোটেলে দেখা গিয়েছিল বলিউড অভিনেত্রী স্নেহা উল্লালের সঙ্গে। 
 

312

সলমন খানের 'লাকি: নো টাইম ফর লাভ' ছবি দিয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেন স্নেহা। ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে তাঁর মুখের মিল থাকায় অল্প সময়েই দারুণ পরিচিতি পেয়েছিলেন। কিন্তু, বলিউডে বিশেষ সুবিধা করতে না পেরে, দক্ষিণী ছবিতেই মন দিয়েছেন। 

412

এই 'সলমন গার্ল'ই গেইলের 'লাকি গার্ল' হয়ে উঠেছিলেন। স্নেহার সঙ্গে সময় কাটানোর দুদিন পরই টি২০ ক্রিকেটে সর্বাধিক ছক্কা মারার রেকর্ড করেছিলেন ক্রিস গেইল। ১১ টি ছক্কায় মাত্র ৪৮ বলে করেছিলেন অপরাজিত ১০০ রান। ১৮২ রান করেই গেইল ঝড়ে উড়ে গিয়েছিল ইংল্যান্ড।

512

স্নেহা গেইলের সঙ্গে তাঁর নতুন বন্ধুত্বের কথা স্বীকার করতে কোনও দ্বিধা করেননি। এমনকী গেইলের ওই আগ্রাসী ইনিংসের পর নিজেই গেইলের সঙ্গে তাঁর পার্টিতে কথোপকথনের একটি ছবি পোস্ট করে স্নেহা লিখেছিলেন, 'সবসময়ই আগ্রাসী'। 
 

612

আর ওই পার্টির পরই স্নেহা গেইলের সঙ্গে তাঁর একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, 'ক্রিস গেইলকে দেখুন, কাল রাতে ও কি কিউট ছিল। আমরা নাচলাম এবং আড্ডা দিলাম। একজন দারুণ মানুষ। আগামীকালের ম্যাচের জন্য শুভকামনা রইল।' তবে পার্টি শুধু নাচ-আড্ডায় শেষ হয়েছিল, এমনটা অনেকেই মানেন না। 

712

ওই পার্টি ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের আরেক সদস্য ডোয়াইন ব্রাভোর গান রিলিজের পার্টি। ডিজে ব্রাভোর বিখ্যাত চ্যাম্পিয়ন গানটি সেই রাতেই প্রকাশিত হয়েছিল। সেই পার্টিতে স্নেহা উল্লাল কী করে পৌঁছেছিলেন, তা আজও রহস্য। 

812

গেইলের সঙ্গে কী নিয়ে কথা হয়েছিল তাঁর? স্নেহা বলেন, একজন অভিনেত্রী এবং একজন ক্রিকেটার মিলিত হলে যে ধরণের কথা হয় - ক্রিকেট, অভিনয়, নাচ এবং ভারত - এইসব নিয়েই কথা হয়েছিল তাঁদের। 
 

912

তবে পরে আরও এক সাক্ষাতকারে স্নেহা জানিয়েছিলেন, গেইল তাঁকে হিউম্যান ডল বা মানব পুতুল বলেছিলেন। কেন তাঁকে গেইল এই কথা বলেছিলেন, তা স্নেহার ছবিতেই স্পষ্ট। তবে সেই পুতুল নিয়ে গেইল কি খেলা করেছেন?
 

1012

স্নেহা জানিয়েছেন, ওই প্রাইভেট পার্টিতে গেইলই প্রথম তাঁর দিকে এগিয়ে এসেছিলেন। আলাপচারিতা চলতে চলতেই ঘনিষ্ঠতা বেড়েছিল। এমনকী স্নেহা জানান, যে, দুজনে ফোন নম্বরও বিনিময় করেছিলেন। 
 

1112

স্নেহা আরও দাবি করেন, গেইল নাকি এখনও তাঁকে মাঝে মাঝে ফোন করেন। তবে স্নেহার সঙ্গে দেখা হওয়ার কয়েকদিন আগেই গেইল এক মহিলা ক্রীড়া সাংবাদিককে তাঁর লিঙ্গ ধরে দেখার প্রস্তাব দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। যা নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন ইউনিভার্স বস।

1212

এই প্রসঙ্গ উঠতেই গেইলকে ডিফেন্ড করেছিলেন স্নেহা। দ্রুত বলেছিলেন, 'আমি ওকে একজন দারুণ আকর্ষণীয় এবং নিয়ন্ত্রণাধীন মানুষ হিসাবে পেয়েছি। ও খুব শান্তই ছিল।'