Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পুজোর আগে ঝরবে ওজন-উজ্জ্বল হবে ত্বক, একটা মাত্র টিপসে একসঙ্গে মিলবে দুই সুফল

ঘি দুধ থেকে তৈরি করা হয়। এতে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন এ, বিউটরিক অ্যাসিড ও স্বাস্থ্যকর চর্বি থাকে। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে, ব্যথা কমাতে, শরীরে ভিটামিনের জোগান ঘটাতে বেশ উপকারী। এর সঙ্গে ত্বক ও চুলের একাধিক সমস্যা সমাধানে ব্যবহার করুন ঘি। 

Drinking ghee in milk has tremendous benefits, age old Ayurvedic recipe bpsb
Author
First Published Sep 8, 2022, 3:22 PM IST

দুধ ও ঘি একসাথে খেলে অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়। আয়ুর্বেদ অনুসারে, ভারতের প্রাচীন চিকিৎসা পদ্ধতি, আপনি যদি খালি পেটে দেশি ঘি বা খাঁটি মাখন খান তবে এটি আপনার স্বাস্থ্যকে বাড়িয়ে তুলবে। এটি আপনার শরীরের প্রতিটি কোষকে পুষ্ট করে। দেশি ঘি চর্বি সমৃদ্ধ। এটিতে ৬২% স্যাচুরেটেড ফ্যাট রয়েছে, যা লিপিড প্রোফাইলের ক্ষতি না করেই এইচডিএল বা ভাল কোলেস্টেরল বাড়ায়। 

ঘি দুধ থেকে তৈরি করা হয়। এতে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন এ, বিউটরিক অ্যাসিড ও স্বাস্থ্যকর চর্বি থাকে। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে, ব্যথা কমাতে, শরীরে ভিটামিনের জোগান ঘটাতে বেশ উপকারী। এর সঙ্গে ত্বক ও চুলের একাধিক সমস্যা সমাধানে ব্যবহার করুন ঘি।

রান্না ঘরের অপরিহার্য উপাদানগুলোর মধ্যে ঘি অন্যতম। খাবারে স্বাদ যোগ করতে ঘি ব্যবহার করেন প্রায় সকলেই। জানেন কি স্বাদ ফেরানো ছাড়া ঘি-এর রয়েছে একাধিক গুণ। কিন্তু দুধে ঘি মিশিয়ে খাওয়া হলে এর উপকারিতা দ্বিগুণ হয়ে যায়।

Drinking ghee in milk has tremendous benefits, age old Ayurvedic recipe bpsb

কারণ ঘি ভিটামিন এ এবং ভিটামিন কে, প্রোটিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মতো পুষ্টিতে ভরপুর। যেখানে দুধ ভিটামিন ডি, প্রোটিন, ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ। দুধে ঘি পান করা একটি প্রাচীন আয়ুর্বেদিক রেসিপি।

পাচনতন্ত্রের সমাধান দুধে থাকা ঘি শরীরের অভ্যন্তরে হজমকারী এনজাইমগুলিকে উদ্দীপিত করে হজম শক্তি বাড়ায়। এই এনজাইমগুলি জটিল খাবারগুলিকে সহজতর খাবারে ভেঙে দেয়, যা শরীরে ভাল হজমের দিকে পরিচালিত করে।

ভালো ঘুমাবে ঘি মানসিক চাপ কমিয়ে মেজাজকে সতেজ করে। এক কাপ উষ্ণ দুধে এটি মেশানো হলে এটি স্নায়ুকে শান্ত করে, যার ফলে এটি খাওয়ার জন্য ভাল ঘুম হয়।

জয়েন্টের ব্যথা জয়েন্টে ব্যথার সমস্যা থাকলে নিয়মিত দুধে ঘি মিশিয়ে খেতে হবে। দুধে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম পাওয়া যায় এবং ঘিতে ভিটামিন K2 এর পরিমাণ ভালো থাকে। এই ভিটামিন হাড়ের জন্য খুবই উপকারী। দুধের সাথে ঘি মিশিয়ে পান করলে জয়েন্টের ব্যথায় আরাম পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন- বিশ্বের বিরলতম রক্ত বইছে ভারতের মাত্র একজনের শরীরেই, জেনে নিন সেই ব্যক্তি ও ব্লাডগ্রু

আরও পড়ুন- পিরিয়ড হতে দেরি হলে এই ভেষজ পানীয়টি পান করুন, ব্যথা থেকেও মিলবে মুক্তি

আরও পড়ুন- বয়স অনুযায়ী আপনার প্রতিদিন কতটা হাঁটা উচিত জানেন? 

ত্বকের উজ্জ্বলতা ঘি এবং দুধ উভয়ই প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার, এটি ছাড়াও ঘি ত্বককে ভেতর থেকে বাইরে পর্যন্ত উজ্জ্বল করে। প্রতিদিন সন্ধ্যায় দুধ ও ঘি পান করলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ে।

মেটাবলিজম ঘুমানোর সময় দুধের সঙ্গে ঘি মিশিয়ে খেলে মেটাবলিজম ভালো হয়। এটি শরীরের ওজন কমাতেও সাহায্য করে। এ ছাড়া দুধ ও ঘি একসঙ্গে মিশিয়ে পান করলেও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয় এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios