Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মদ্যপান করলেই ঘাম হচ্ছে কিংবা গরম লাগে? জেনে নিন অজান্তে কোন বিপদ ডেকে আনছেন

খেয়াল করে দেখেছেন মদ্যপান করলে আপনার শরীরে কোনও পরিবর্তন হয় কি না। মদ্যপান করলেই ঘাম হয় অনেকের। কিংবা গরম লাগে অনেকের। জানেন কি এর পিছনে রয়েছে এক বিশেষ কারণ। মদ্যপান করলে যদি ঘাম হয় বা গরম লাগে তাহলে সতর্ক হন। জেনে নিন কেন এমন হচ্ছে। 

Know the reason why people sweat after drinking alcohol ABSC
Author
Kolkata, First Published Jul 31, 2022, 11:06 AM IST

সপ্তাহান্তে পার্টি মাস্ট। সারা সপ্তাহের ক্লান্তি দূর করতে নতুন উদ্যম পেতে এটাই নাকি সেরা অপশন। তেমনই কোনও আনন্দ উৎসব উপভোগ করতে অনেকেই মদ্যপান করে থাকেন। এদিকে খেয়াল করে দেখেছেন মদ্যপান করলে আপনার শরীরে কোনও পরিবর্তন হয় কি না। মদ্যপান করলেই ঘাম হয় অনেকের। কিংবা গরম লাগে অনেকের। জানেন কি এর পিছনে রয়েছে এক বিশেষ কারণ। মদ্যপান করলে যদি ঘাম হয় বা গরম লাগে তাহলে সতর্ক হন। জেনে নিন কেন এমন হচ্ছে। 

মদ্যপান করতে অনেকের হার্টবিট দ্রুত হয়ে যায়। এটি স্নায়ুতন্ত্র ও সংবহনতন্ত্রের ওপর প্রভাব ফেলে। হৃদস্পন্দন বাড়িয়ে দেয়। এই কারণে ঘাম হয় অনেকের। 

তেমনই অ্যালকোহল স্নায়ুতন্ত্রকে প্রভাবিত করে। এর ফলে রক্তনালীগুলো শক্ত করতে পারে। যার ফলে রক্তচাপ বৃদ্ধি পায়। তাই মদ্যপান করলে ঘাম হতে পারে। 

মদ্যপান করলে ঘাম হওয়ার আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হল শরীরের তাপমাত্রা। অ্যালকোহল শরীরের বিপাকীয় ক্রিয়ার ওপর প্রভাব ফেলে। যা বিপাকীয় হার বৃদ্ধি করে। শরীরের তাপমাত্রা এর ফলে বাড়তে থাকে। শরীর সুস্থ রাখতে চাইলে মদ্যপান ত্যাগ করুন। 

আমাদের মস্তিষ্কে থাকা হাইপোথ্যালামাস নামক উপাদান স্নায়ুতন্ত্র ও শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য দায়ী। আর মদ্যপান করলে অ্যালকোহল মস্তিষ্ককে প্রভাবিত করে। শরীরের তাপমাত্রা পরিবর্তন করে। এর কারণে ঘাম হতে পারে। 

তেমনই মুখ লালচে হয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয় অনেকের। আসলে অ্যালকোহল পানের সময় শরীর তাপামাত্রা বেড়ে যায়। এই তাপমাত্রা বৃদ্ধির প্রভাব পড়ে ত্বকে। 

তাই সুস্থ থাকতে চাইলে পরিবর্তন করুন মদ্যপানের মতো বদ অভ্যাস। মদ্যপানের কারণে সবার আগে ক্ষতিগ্রস্থ হয় লিভার। তাছাড়াও নানান শারীরিক জটিলতা তৈরি হয়। এই অভ্যেস এক সময় মৃত্যুর কারণ পর্যন্ত হতে পারে। তাই সুস্থ থাকতে চাইলে জীবনযাত্রায় বদল আনুন। সঠিক খাবার খান। তালিকায় রাখুন প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল, ক্যালসিয়ামের মতো খাবার। তেমনই রোদ প্রচুর পরিমাণে জল খান। দিনে ৭ থেকে ৮ গ্লাস জল খাওয়া প্রয়োজন। এর সঙ্গে রোজ ব্যায়াম করুন। দিনে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট ব্যায়াম করুন। যতটা পারবেন শারীরিক ভাবে সক্রিয় থাকার চেষ্টা করুন। তবেই সুস্থ থাকা সম্ভব। আর অবশ্যই ত্যাগ করুন মদ্যপান ও ধূমপানের মতো অভ্যাস।  

আরও পড়ুন- ডায়াবেটিক রোগীরা খাদ্যতালিকায় রাখুন এই পাঁচটি সবজি, সহজে মিলবে উপকার

আরও পড়ুন- রান্নায় ব্যবহার করুন জিরে-ধনের বিশেষ মিশ্রণ, মিলবে রোগ থেকে মুক্তি, জেনে নিন কীভাবে

আরও পড়ুন- আসল জামদানি চেনার সহজ উপায়, পুজোর আগে দাম দিয়ে শাড়ি কেনার অগে অবশ্যই জেনে নিন টিপস

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios