সন্দীপ মজুমদার, হাওড়া:  বহিরাগত যোগে করোনা সংক্রমণ ছড়াবে না তো? শ্রমিকদের কাজে যোগ দেওয়া নিয়ে গন্ডগোলের জেরে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেল কারখানা। কাজ হারালেন দুশোজন। ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার ডোমজুড়ে। 

আরও পড়ুন: মন্দারমণির পর এবার খুলছে দিঘা, ত্রিশ শতাংশ হোটেল নিয়ে শুরু পর্যটন

জানা গিয়েছে,  ডোমজুড়ে জালান কমপ্লক্সে রেলের যন্ত্রাংশ তৈরির একটি কারখানা চলে। কারখানায় কাজ করতেন উত্তরপ্রদেশের ছ'জন শ্রমিক। লকজাউন জারি হওয়ার পর যে যাঁর বাড়িতে ফিরে গিয়েছিলেন। আনলক পর্বে যখন ফের কারখানা চালু হয়, তখন করোনা আতঙ্কে ভিনরাজ্যে শ্রমিকদের কাজে যোগ দিতে বাধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তাঁদের সরকারি নিয়ম মেনে চোদ্দো দিনে জন্য কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর দাবি তোলেন অন্য শ্রমিকরা। তা নিয়েই গন্ডগোল সূত্রপাত। শেষপর্যন্ত বুধবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানাটি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল কর্তৃপক্ষ। 

আরও পড়ুন:আনলকে 'বিপদের হাতছানি', করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় 'ডাবল সেঞ্চুরি' পেরোল এই জেলা

রেলের যন্ত্রাংশ তৈরির কারখানার ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাহুল খৈতান জানিয়েছেন, খোঁজ খবর নেওয়ার পরেই উত্তরপ্রদেশের শ্রমিকদের কাজে যোগ দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তাঁদের নিয়ে আশঙ্কার কারণ নেই। তবে শ্রমিকদের দাবিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আগামী দিনে পরিস্থিতি কোনদিকে গড়ায়, তা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এদিকে কাজ যোগ দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শ্রমিকরা। তাঁদের একটাই প্রশ্ন, কারখানায় যদি করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে, তাহলে তার দায় কে নেবে?