বিশ্বনাথ দাস, হাওড়া-ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে আতঙ্ক ছড়াল জাতীয় সড়কের উপর। গ্যাস সিলিন্ডার বোঝাই লরির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রী প্রতিক্ষালয়ে ধাক্কা মারলে সঙ্গে সঙ্গে আগুন লেগে যায়। ঘটনাস্থলে দমকলের ৬টি ইঞ্জিনের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। বিধ্বংসী আগুনের জেরে জাতীয় সড়কে বেশ কিছুক্ষণ গাড়ি চলাচল ব্যাহত হয়।

আরও পড়ুন-তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জের, দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে টিম পিকে

মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ায় ছয় নম্বর জাতীয় সড়কের উপর রানিনগরে। জানাগেছে এদিন রাতে গ্য়াস সিলিন্ডার বোঝাই একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আচমকাই ধাক্কা মারে এলাকার একটি যাত্রী প্রতিক্ষালয়ে। দুর্ঘটনার পরই আগুন লেগে যায় লরিতে। লরিতে গ্য়াস সিলিন্ডার ভর্তি থাকায় বিস্ফোরণের জেরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। আগুন ছড়িয়ে পড়ে পাশের একটি ডেকোরেটর্সের দোকান ও কয়েকটি বাড়িতে। ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডের জেরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। আগুনের লেলিহান শিখা মুহূর্তের মধ্য়ে গ্রাস করে গোটা এলাকা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকল বাহিনী।

আরও পড়ুন-রাত পেরোলেই মহালয়া, ধুলো জমে থাকা রেডিও সারানোর হিড়িক মুর্শিদাবাদ জুড়ে

আগুন আতঙ্ক এতটাই ভয়াবহ রূপ নেয় যে, পাশে থাকা একটি নার্সিংহোমের রোগীদের অন্যত্র স্থানান্তর করা হয়। আশেপাশের বাড়িতে আগুন লেগে যাওয়ায় সেখানকার বাড়ির সদস্যরাও ঘর ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসে। ঘটনার জেরে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন প্রায় কয়েক হাজার লোক। 

আরও পড়ুন-শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ, ২০ দিন পর ব্যক্তির পচাগলা দেহ উদ্ধার

ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে দমকল। কিন্তু আগুন এতটাই মারাত্মক আকার নেয় যে কিছুতেঅই আগুন বাগে আনতে পারছিলেন না দমকলকর্মীরা। অবশেষে দমকলের ছটি ইঞ্জিনের প্রায় কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। জানাগেছে হাওড়ামুখী ছিল গ্য়াস সিলিন্ডার বোঝাই ওই লরিটি। তবে, ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের কোনও খবর নেই। ঘটনার জেরে বেশ কিছুক্ষণ জাতীয় সড়কে যান চলাচল ব্যাহত থাকে।