গোদাবরী নৌকোডুবিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে গিয়ে হল ২৫। রবিবার দুপুরে অন্ধ্রপ্রদেশের দেবীপত্তনমের কাছে  একটি যাত্রীবোঝাই নৌকো উল্টে যায় বলে খবর। নৌকোতে ক্রু-সহ আনুমানিক প্রায় ৬২ জন যাত্রী ছিল বলে জানা গিয়েছে। 

মঙ্গলবার  আরও ১৭টি দেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা পর্ষদ সূত্রে। মঙ্গলবার উদ্ধারকারী একটি দল পট্টিসিমা, অঙ্গুরুলু কোফার বাঁধ এবং পোলাভারম লঞ্চ নদী থেকে একটি করে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। দেবীপত্তনম এলাকা থেকেই ১০টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বাকি আরও দেহ উদ্ধার করা হয়েছে দাওয়ালেশ্বরম এবং আত্রেয়পুরম ডাউন স্ট্রিম এলাকা থেকে।  

প্রশাসনিক সূত্রে খবর, গত কয়েক দিন ধরেই উত্তাল হয়ে ছিল গোদাবরী নদী। রবিবার নদী সংলগ্ন একটি বাঁধ থেকে বিপুল পরিমাণ জল ছাড়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছ। যার জেরে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় পরিস্থিতি। আর রবিবারই গভীর নদীতে আচমকাই টাল সামলাতে না পেরে উল্টে যায় নৌকোটি। ঘটনার পরেই উদ্ধারে নামেন বিপর্যয় মোকাবিলা পর্ষদ। এই ভয়াবহ দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

আরও পড়ুন- উথাল-পাথাল গোদাবরী, ৬১ জন যাত্রী নিয়ে উল্টে গেল নৌকা, মৃত ১৩ পর্যটক, নিখোঁজ ৪০

আরও পড়ুন- ৬৯ বছরে পা মোদীর, জন্মদিনের প্রাক্কালে ৬৯ ফুট লম্বা কেক কাটল হিন্দু সংগঠন

আরও পড়ুন- মায়ের আশীর্বাদ নিয়েই দিন শুরু, জন্মদিনে 'নমামি নর্মদা মহোৎসব'এর উদ্বোধনে নরেন্দ্র মোদী

আরও পড়ুন- ৬৯-এ পা মোদীর, দল-মতাদর্শ নির্বিশেষে প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানালেন বিশিষ্ট জনেরা

পাশাপাশি দুর্ঘটনার কিনারা করতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্য়মন্ত্রী জগন্মোহন রেড্ডি।  সেইসঙ্গে মৃতদের পরিবার প্রতি ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ারও ঘোষণা করেছেন তিনি। সাময়িকভাবে নদীতে নৌকো চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল বলে খবর।