উত্তর কাশ্মীরের বান্দিপোড়ায় জঙ্গিদের সঙ্গে গুলির যুদ্ধে এক জওয়ান শহিদ হয়েছেন। সেনার গুলিতে দুই জঙ্গি খতম হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।  শ্রীনগর থেকে ৫৫ কিলোমিটার দূরে লাওদারা গ্রামে  ভারতীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে এখনও গুলির লড়াই চলছে বলে জানা গিয়েছে।  ঘটনাস্থল থেকে ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রচুর অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে বলে জানা গিয়েছে।  নিহত এক জঙ্গির পরিচয় পাওয়া গিয়েছে। তালাহ নামের ওই জঙ্গি পাকিস্তানের নাগরিক বলে প্রামিকভাবে মনে করা হচ্ছে। ওই জঙ্গি লস্কর-ই-তইবার  কমান্ডার ছিলেন বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে।


কাশ্মীরের  নিরাপত্তারক্ষীরা আগে থেকে খবর পান শ্রীনগর থেকে কিছুটা দূরে লাওদারা গ্রামে জঙ্গিরা আত্মগোপন করেছে। তাদের সঙ্গে প্রচুর অস্ত্র ও গোলাবারুদ রয়েছে।  খবর পাওয়ার পরই ভারতীয় সেনাবাহিনী অভিযান চালানো শুরু করে।  নিরাপত্তা রক্ষীদের দেখেই গুলি ছুড়তে থাকে জঙ্গিরা। গুলির লড়াইয়ে দুই জঙ্গি নিহত হয়েছেন। শহিদ হয়েছে এক জওয়ান। 

কাশ্মীরের নিরাপত্তারক্ষীরা জানিয়েছেন, উত্তর কাশ্মীরের অন্য একটি অঞ্চলে অভিযান চালিয়েছে  সেনাবাহিনী। ওই অভিযানে রবিবার বিকেলে এক জঙ্গি নিহত হয়েছেন।  প্রসঙ্গত, ৫ অগস্ট জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়া হয়। লাদাখকে জম্মু ও কাশ্মীর থেকে আলাদা করে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিত করা হয়।  এই সিদ্ধান্তের পর থেকে কাশ্মীরকে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে রাখা হয়েছিল। যান ও মোবাইল পরিষেবার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর থেকেই ফের অশান্ত হতে শুরু করেছে কাশ্মীর। বাড়তে শুরু করেছে জঙ্গিদের আনাগোনা।