ফের সীমান্তে সংঘর্ষবিরোধী চুক্তি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান। শুক্রবার জম্মু ও কাশ্মীরের নৌসেরা সেক্টরের কাছে ফের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তান। আর এর জেরেই প্রাণ গেল এক ভারতীয় সেনা জওয়ানের। শহিদ জওয়ানের পরিচয় জানা গিয়েছ, যাঁর নাম নায়েক রাজীব থাপা, বয়স ৩৪ বছর। জানা গিয়েছে শহিদ জওয়ান জলপাইগুড়ির জেলার মেচপাড়ার বাসিন্দা। বাড়িতে রয়েছে কেবল তাঁর স্ত্রী খুশবু মঙ্গর থাপা। 

উন্নয়নের পথে এগোচ্ছে 'নয়া ভারত', ফ্রান্সে গিয়ে বার্তা দিলেন মোদী

স্মৃতি সৌধের পর বাদ গেল না পশুও, প্রেম জাহির করতে গণ্ডারের গায়ে লেখা হল যুগলের নাম

প্রতিরক্ষার এক মুখপাত্রের কথায়, তিনি খুবই সাহসী এবং নিষ্ঠাবান সেনা হিসাবেই পরিচিত ছিলেন। দেশের জন্য কাজ করতে গিয়ে তাঁর যে এই বিরাট আত্মত্যাগ, তা এই দেশ তথা জাতি আজীবন মনে রাখবে। তবে সীমান্তে এই ঘটনার পর ভারতীয় সেনার তরফেও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, সীমান্তে গুলির লড়াইয়ের পর গত সপ্তাহে মোট তিন জন সেনা জওয়ান এবং একজন সাধারণ মানুষের মৃত্য়ু হয়েছে। 

চলতি বছরে এই রাজ্যে নিখোঁজ প্রায় দু'হাজার মহিলা, অধিকাংশেরই কোনও হদিশ পায়নি পুলিশ

রাজীব থাপার মৃত্যুর পর পাকিস্তানি সেনা পোস্টগুলির ওপর ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি চালানো হয়েছে। সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শহিদ রাজীব থাপা নওশেরা সেক্টরের কলসিয়া গ্রামে টহল দিচ্ছিলেন। শুক্রবার ভোরে আচমকাই গোলাবর্ষণ করে পাকিস্তান সেই গুলিতেই বিদ্ধ হন রাজীব। আহত রাজীবকে সেনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।