Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Babul Supriyo: 'এই তৃণমূল আর নয়', নিজের গাওয়া গান অস্বস্তি বাড়ল বাবুল সুপ্রিয়র

পথসভায় একটি চেয়ারে বসেছিলেন বাবুল।  ঠিক সেই সময়ই মঞ্চের পাশে বেজে উঠেছিল দু বছর আগে বাবুল সুপ্রিয় গাওয়া গান এই তৃণমূল আর নয়।

Babul Supriyo is embarrassed by his own song ai trinamool ar noy bsm
Author
Kolkata, First Published Nov 20, 2021, 2:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

তখন বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriya) ছিলেন বিজেপিতে (BJP)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও। নরেন্দ্র মোদী থেকে অমিত শাহ- বিজেপির শীর্ষ নেতাদের অত্যান্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন তিনি। বিজেপি বিশ্বস্ত সৈনিক হিসেবেও নিজেকে দাবি করতেন তিনি। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে তাই প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) বিরুদ্ধে গান বেঁধে ছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। তারপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল বয়ে গেছে। দল বদল করে তিনি এখন তৃণমূলে।  'এই তৃণমূল আর নয়' এই গান যে মাত্র দুই বছর পরেই তাঁকে অস্বস্তিতে ফেলবে তা হয়তো স্বপ্নেও ভাবেননি বর্তমানের তৃণমূল নেতা। যদিও তেমনই এক অস্বস্তিতিকর ঘটনার সাক্ষী থাকলেন বাবুল সুপ্রিয়। 

ঘটনার সূত্রপাত সুদূর ত্রিপুরার (Tripura)আগরতলায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। প্রচার সভায় উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের যুব নেত্রী সায়নী ঘোষ। পথসভায় একটি চেয়ারে বসেছিলেন বাবুল।  ঠিক সেই সময়ই মঞ্চের পাশে বেজে উঠেছিল দু বছর আগে বাবুল সুপ্রিয় গাওয়া গান এই তৃণমূল আর নয়। সভায় উপস্থিত সায়নী তৎক্ষনাত বাবুল সুপ্রিয়র হাতে মাইক্রোফোন তুলে দেন। সঙ্গে সঙ্গেই ড্যামেড কন্ট্রোলে নেমে পড়েন বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বলেন, ভেবে দেখুন নেতারা কতখানি অহংকারী হলে আর নিচুতলার কর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করলে যে এই গান লিখেছিল তাঁকে দল বদল করে দিদির হাত ধরতে হয়। তিনি আরও বলেন, 'আমি এই গান শুনছি না। আমি যা করি মন দিয়েই করি। ' সভামঞ্চ থেকেই বাবুল প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের জন্য আরও ভালো গান লিখবেন। 

PM Modi: পুলিশ শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক, থাকবেন নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ আর অজিত ডোভাল

Tathagata Roy: 'আপাতত বিদায়', আবার বিতর্কিত টুইট তথাগত রায়ের, পাল্টা কটাক্ষ কুণালের

২০২১ সালে মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণের পর মন্ত্রিত্ব ছাড়তে হয়েছিল বাবুল সুপ্রিয়কে।  তারপরই একাধিকবার ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। উপনির্বাচনে বিজেপি প্রচার তালিকায় নাম থাকলেও একবারও প্রচারে দেখা যায়নি তাঁকে। ভবানীপুর উপনির্বাচনের আগেই দল বদল করেন তিনি। সম্প্রতি দল বদল করে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দান করেছেন তিনি। ত্রিপুরায় নির্বাচনী প্রচারে অন্যতম নেতা হিসেবেও উপস্থিত রয়েছেন তিনি। সেখানেই তাঁকে এজাতীয় বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে তাঁকে। 

Defence Product: ৯০ শতাংশ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম তৈরি হবে দেশে, আশ্বাস দিলেন রাজনাথ সিং

বাবুল সুপ্রিয় রাজনীতিতে এসেই বাজিমাৎ করেছিল। তাঁর হয়ে লোকসভা নির্বাচনে প্রচার করেতে আসানসোলে এসেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। প্রথম দফায় ভোটে জিতে মন্ত্রীও হয়েছিলেন বাবুল। সেই সময় তিনি মোদী ও অমিত শাহর স্নেহধন্য ছিলেন। কিন্তু মন্ত্রিত্ব যাওয়ার পরেই সুর-তাল সবই কেটে যায়। বিজেপির বিশ্বস্ত সৈনিক এখন তৃণমূলের অন্যতম নেতা হওয়াল লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। 
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios