Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Manish Tewri: কংগ্রেসকে চরম অস্বস্তিতে ফেললেন মণীশ তিওয়ারি, ২৬/১১ হল বিজেপির নতুন অস্ত্র

বই লিখে এবার কংগ্রেসকে (Congress) অস্বস্তিতে ফেললেন মণীশ তিওয়ারি (Manish Tewari)। ২৬/১১ মুম্বই সন্ত্রাসবাদী হামলার (26/11 Mumbai Attack) বিষয়ে তাঁর মন্তব্য লুফে নিয়েছে বিজেপি (BJP)। 
 

BJP attacks Congress on Manish Tewari's opinion on UPA govt's responce after 26/11 attack ALB
Author
Kolkata, First Published Nov 23, 2021, 4:35 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দলকে অস্বস্তিতে ফেলাটা বোধহয় অভ্যাস করে নিয়েছেন কংগ্রেস (Congress) নেতারা। তারা একটি করে বই লেখেন, আর কংগ্রেসকে আক্রমণ করার নতুন অস্ত্র পেয়ে যায় বিজেপি (BJP)। সালমান খুরশিদের (Salman Khurshid) আরএসএস-আইএসআইএস তুলনা করা নিয়ে বিতর্কের পর, মঙ্গলবার প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা সাংসদ মণীশ তিওয়ারি (Manish Tewari) আবার, তাঁর লেখা নতুন একটি বই থেকে একটি উদ্ধৃতি প্রকাশ করে দলকে অস্বস্তিকর অবস্থায় ফেললেন। ২০০৮ সালে ২৬/১১ মুম্বই সন্ত্রাসবাদী (26/11 Mumbai Attack) হামলার পর মনমোহন সিং-এর (Manmohan Singh) নেতৃত্বাধীন ইউপিএ-১ সরকারের (UPA-1 Govt) প্রতিক্রিয়ার সমালোচনা করেছেন তিনি। আর এই নিয়ে কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে দেরি করেনি বিজেপি। 

মণীশ বলেছেন, ২০০৮ সালের ওই হামলার পর, ভারতের উচিত ছিল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে 'একটি গতিশীল প্রতিক্রিয়া' দেওয়ার। অর্থাৎ, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা উচিত ছিল মনমোহন সরকারের। তিনি আরও বলেছেন, সংযম কোনও কোনও শক্তির বহিপ্রকাশ নয়, এটি 'দুর্বলতার চিহ্ন'। আগামী ২ ডিসেম্বর, রুপা পাবলিকেশনস থেকে প্রকাশিত হবে মণীশ তিওয়ারির নতুন বই '১০ ফ্ল্যাশ পয়েন্টস; ২০ ইয়ার্স - ন্যাশনাল সিকিউরিটি সিচুয়েশনস দ্যাট ইমপ্যাক্টেড ইন্ডিয়া' (10 Flash Points; 20 Years - National Security Situations that Impacted India) বইটি। এদিন টুইটারে  সেই বইয়েরই প্রচারে, বইটির কিছু অংশ ফাঁস করেন মণীশ। যা আগামী বছরের শুরুতে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে  বিজেপির হাতে প্রয়োজনীয় গোলাবারুদ তুলে দিল বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। 

আরও পড়ুন - Gallantry Awards: শহীদ কর্নেল সন্তোষ বাবু পেলেন মহাবীর চক্র, আরও ৫ জন 'বীর চক্রে' সম্মানিত

আরও পড়ুন - India-Bangladesh: 'সম্পর্কের স্বর্ণালী সময়', ৬ ডিসেম্বর ২০ টি দেশে পালিত হবে 'মৈত্রী দিবস'

আরও পড়ুন - Mamata In Delhi: প্রথম দিনই ৫ বিশিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক, জেনে নিন মমতার দিল্লির কর্মসূচি

"

বইয়ে মণীশ জানিয়েছেন, শত শত নিরপরাধ মানুষকে নির্মমভাবে হত্যা করার পরও পাকিস্তানের (Pakistan) কোনও অনুশোচনা কাজ করে না। কাজেই এরকম একটি দেশের কাছে সংযম কখনই শক্তি বলে বিবেচিত হতে পারে না। তারা এটাকে দুর্বলতা বলেই দেখে। তিনি আরও বলেছেন, একেকটা সময় আসে যখন মুখের কথার থেকেও কাজ বা অ্য়াকশনকে জোরালো হতে হয়। ২৬/১১ মুম্বই হামলা ছিল এমনই একটা সময়। কথার থেকে কাজ বেশি দরকারি ছিল। তাই, সবদিক বিচার-বিবেচনা করে তিনি জানিয়েছেন, 'ভারতের ৯/১১'-র পর ভারতের দিক থেকে একটি 'গতিশীল প্রতিক্রিয়া' হওয়া উচিত ছিল।

মণীশ তিওয়ারি বইয়ের এই অংশ প্রকাশ হতেই তা লুফে নিয়েছে বিজেপি। ২০২২ সালের গোড়ায় বিধানসভা নির্বাচনের আগে উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh Elections) পাশাপাশি পাঞ্জাবের (Punjab Elections) মতো গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যগুলিতে কংগ্রেসকে একেবারে কোণঠাসা করার চেষ্টা করছে বিজেপি। বিশেষ করে জাতীয় নিরাপত্তার প্রশ্নে। এদিনই বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য (Amit Malviya), মণীশের বইয়ের ওই অংশ তুলে টুইট করেছেন। তাঁর দাবি, সালমান খুরশিদের পর আরও এক কংগ্রেস নেতা নিজের বইয়ের বিক্রি বাড়াবার জন্য ইউপিএ সরকারকে জলাঞ্জলী দিলেন। তিনি  আরও জানিয়েছেন, তৎকালীন বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল ফলি মেজর (Air Chief Marshal Fali Major) আগেই জানিয়েছেন, ওই হামলার জবাব দেওয়ার জন্য তৈরি ছিল বায়ু সেনা। কিন্তু, সরকার ভয় পেয়েছিল হামলা চালাতে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios