বিশ্বখ্যাত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা, নতুন করোনভাইরাস সংকটের মোকাবিলায় মোদী সরকারকে একশোয় একশো নম্বর দিয়েছে। এই মহামারি মোকাবিলার জন্য সম্মিলিত ব্যবস্থা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ভারত শীর্ষস্থান অর্জন করেছে। মোদী সরকারের তৎপরতা, এবং কার্যকর লকডাউন বাস্তবায়নের গতিশীলতার কাছে বিশ্বের অন্যান্য সব দেশ হেরে গিয়েছে। গত ১০ এপ্রিল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্লাভ্যাতনিক স্কুল অফ গভর্নমেন্ট-এর একটি ইনফোগ্রাফিক টুইট করে এমনটাই দাবি করেছিল বিজেপি। কিন্তু, মঙ্গলবার টুইট করে সেই দাবি অস্বীকার করল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়।

এদিন ব্লাভাতনিক স্কুল অফ গভর্নমেন্ট, বিজেপির টুইটটির জবাবে বলেছে, যে ইনফোগ্রাফিক পোস্ট করে বিজেপি ১০০ নম্বরের কথা বলছে, তা কোভিড-১৯ মহামারির প্রতিক্রিয়া হিসাবে বিভিন্ন সরকারের গৃহীত নীতির সংখ্যা এবং কঠোরতার জন্য দেওয়া হয়েছে। এটিকে কোনও দেশের গৃহীত পদক্ষেপের যথাযথতা বা কার্যকারিতা প্রকাশের সূচক হিসাবে ব্যাখ্যা করা উচিত নয়। এই সূচকে কেবল কতগুলি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তাই বলা হয়েছে। তা কতটা কার্যকরী হয়েছে, তা এতে প্রকাশ পায়নি।

গত ২৫ মার্চ, কোভিড-১৯ মহামারির প্রেক্ষিতে 'গভর্নমেন্ট রেসপন্স ট্র্যাকার' চালু করেছিল, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির ব্লাভ্যাতনিক স্কুল অফ গভর্নমেন্ট । এই ট্র্যাকারের মাধ্যমে, তারা বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন সরকারের কোভিড-১৯ প্রতিক্রিয়াগুলি পরিমাপ করে এবং একটি সাধারণ কঠোরতা সূচকে ফেলে নম্বর দিয়ে তার পরিমাপ করে। অর্থাৎ এই সূচকটি বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন সরকার কীভাবে মহামারিটির মোকাবিলা করছে এবং তাতে জনগণের কতটা অস্বাচ্ছন্দ তৈরি হচ্ছে তা পরিমাপ ও অন্বেষণ করার একটি পদ্ধতি।


রাস্তায় গড়ানো দুধ একইসঙ্গে চাটছে মানুষ ও কুকুর, করোনায় প্রকট অনাহারের যাতনা, দেখুন

সামাজিক দূরত্ব কতটা প্রতিরোধ করছে করোনাভাইরাস-কে, দেখে নেওয়া যাক বিভিন্ন দেশের ছবিটা

কাজ দিচ্ছে 'ক্লাস্টার কনটেইনমেন্ট' কৌশল, ১৪ দিনে একজনও নতুন রোগী নেই ২৫ জেলায়

এই ট্র্যাকারের তথ্য বিশ্বব্যাপী অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকারা এবং শিক্ষার্থীরা সহজেই ব্যবহার করতে পারবেন। সরকারের কঠোর পদক্ষেপগুলি কোনও দেশে সংক্রমণের হারকে কতটা প্রভাবিত করছে এবং সরকারকে কেন এই ধরণের কঠোর প্রতিক্রিয়া জানাতে হচ্ছে, সেইসব বিষয়ে গবেষণা করার জন্য এই সূচকের তথ্যগুলি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। স্কুল বন্ধ, গণপরিবহণ বন্ধ, আন্তর্জাতিক ভ্রমণ বন্ধ, ভ্যাকসিনে বিনিয়োগ, আর্থিক প্রতিক্রিয়ার মতো ১১ বিষয় ধরে মেপে এই সূচক তৈরি করা হয়। তবে, সূচকটি কোনও দেশে সরকার কোভিড-১৯ মোকাবিলায় কতটা সফল, তা বলতে পারে না বলেই দাবি করেছেন, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক তথা এই 'গভর্নমেন্ট রেসপন্স ট্র্যাকার' প্রকল্পের প্রধান টমাস হেলস।