তামিলনাড়ুর কুদ্দালোরের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থার  বয়লার বিস্ফোরণে কমপক্ষে সাত জন শ্রমিক জখম হয়েছেন। তাঁদের চিকিৎসা চলছে স্থানীয় একটি হাসপাতালে। জখম চার শ্রমিকের অবস্থা রীতিমত আশঙ্কাজনক। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে দমকলের পাঁচটি গাড়ি। ঘটনাস্থলে রয়েছে পুলিশ ও দমকল বাহিনীর অধিকারিকরা। ঘটনাস্থলে রয়েছেন এনএলসি-র আধিকারিকরাও। 

এনএলসির কর্মী সংখ্যা প্রায় ২ হাজার। সাতটি ইউনিট রয়েছে। বহু সংখ্যক কর্মীও উপস্থিত ছিলেন।  চারটি ইউনিটের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য কাজ করছিলেন বেশ কয়েকজন শ্রমিক। সেই সময়ই এই দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত শ্রমিকদের জন্য ৫ লক্ষ টাকার ইনসিওরেন্স রয়েছে বলেও জানিয়ে কর্তৃপক্ষ। 

নবভারত প্রকল্পের আওয়াধীন একটি সরকার সংস্থা এনএলসি।  এটি জীবাশ্ম জ্বালানী খনন সেক্টর তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনকারী সংস্থা। 

আরও পড়ুনঃ বিশাপত্তনমের কারখানা নির্গত হওয়া স্টাইরিন গ্যাস বিস্ফোরণে সক্ষম, কতটা ক্ষতিকর এই গ্যাস ..

আরও পড়ুনঃ অন্ধ্র পুলিশের 'টোটকা' দুধ কলা সাবান আর গুড়, বিশাখাপত্তনম গ্যাস কারখানা মেরামতিতে আসছে রায়াসনিক ...
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পরপর ৩টি দুর্ঘটনা ঘটে দেশে। প্রথমটি অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তনমের গ্যাস কারখারখানায়। এখনও পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। অসুস্থের সংখ্যা শতাধিক। দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে ছত্তিশগড়ে। পেপার মিল থেকে গ্যাস লিক করায় অসুস্থ হয়ে পড়েন কারখানায় কর্মরত ৭ শ্রমিক। তামিলনাড়ুতেও বয়লার বিস্ফোরণে জখম হয়েছেন ৭ জন। 

আরও পড়ুনঃ বিশাখাপত্তনমের রাসায়নিক কারখানার গ্যাসকাণ্ড দুর্ঘটনা না নাশকতা, তথ্য খুঁজছে প্রশাসন ..