করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে নেমে অনেক শিক্ষা নিয়েছে ভারত। আর সেই শিক্ষা থেকেই আগামী দিনে সেনা বাহিনীর প্রয়োজনী গুলি বোমা তৈরির কথা ভাবছেন চিফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত। তাঁর কথায় করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয় করতে নেমে অসম্ভব উদ্ভাবনী শক্তির পরিচয় দিয়েছে ভারত। দেশের বিজ্ঞানী ও চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা দেখিয়েছেন দেশের মানুষই পারে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সরঞ্জাম তৈরি করতে। তাহলে কেন সেনাবাহিনীর প্রয়োজনী গুলি বারুদ আমদানি করা হবে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ব্যবহার করে সেগুলিতো দেশের মাটিতেই তৈরি করা যাবে।


করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করতে নেমে বর্তমানে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কারখানায় একাধিক চিকিৎসা সামগ্রী তৈরি হচ্ছে। যা ইতিমধ্যেই নজর কেড়েছে বিশেষজ্ঞদের। বিপিন রাওয়াত এদিন আরও বলেন করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইতে নেমে তাঁরা দেখেন নিয়মানুবর্তীতা আর ধৈর্য্য পারে জেতাতে। উদাহরণ টানতে গিয়ে তিনি বলেন,  ভারতীয় সেনাবাহিনীতে আক্রান্তের সংখ্যা খুবই কম। পাশাপাশি তিনি জানান দেশের সব জওয়ানও আরোগ্যসেতু অ্যাপ ডাউন  লোড করেছে। আর সেনা জওয়ানরা নিজেরাই নিজেদের খেয়াল রাখছে। 

আরও পড়ুনঃ করোনা মোকাবিলায় দ্রুত পরীক্ষায় দেরি কেন, সামনে আসছে কোন কোন তথ্য ..

আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্ত অমানবিক আর অসংবেদনশীল, মহার্ঘ্য ভাতা নিয়ে তোপ রাহুল গান্ধির ...

আরও পড়ুনঃ করোনা লড়াইয়ে অংশ হতে পারেন আপনিও, মন কি বাত অনুষ্ঠানে বার্তা মোদীর ..

ভারতীয় সেনা জওয়ানদের সুস্থ থাকা অত্যান্ত জরুরী। কারণ  দেশকে রক্ষার জন্য সেনা জওয়ানদের সুস্থ থাকা অত্যান্ত জরুরী। করোনার কারণে সেনার ব্যায়ও কমানো হবে বলে জানিয়েছেন বিপিন রাওয়াত। তিনি বলেন যে টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে তাতে অপচায় করা যাবে না। কিন্তু যে কোনও আপারেশনে যেতেই পারে ভারতীয় বাহিনী।