দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গত কয়েকদিন ধরে প্রতিদিনই রেকর্ড গড়ছিল। এবার দৈনিক মৃতের সংখ্যায় ব্যাপক বৃদ্ধি আশঙ্কার মেঘ আরও কালো করল। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ২০০৩ জনের। ফলে দেশে একলাফে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১,৯০৩।

 

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন ১০,৯৭৪ জন। ফলে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লত্র ৫৪ হাজার ৬৫ জন। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশে করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯৩৫ জন। ফলে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৫৫ হাজার ২২৭। ফলে টানা ৯ দিন দেশে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা আক্রান্তদের তুলনায় বেশি থাকল। এদিকে দেশে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৫২.৭৯ শতাংশ।

শরীরে বাসা বেঁধেছে মারণ করোনা, পরিবারকে বাঁচাতে আতঙ্কে এবার আত্মহত্যা শুল্ক আধিকারিকের

নতুন করে কোনও লকডাউন হচ্ছে না দিল্লিতে, শাহের সবর্দল বৈঠকের পর জল্পনা উড়িয়ে ট্যুইট কেজরির

বিধিনিষেধ উঠতেই ফের বিপত্তি, আর করোনামুক্ত নয় দ্বীপরাষ্ট্র নিউজিল্যান্ড

সরকারের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সবচেয়ে বেশই করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সোমবার দেশে কমপক্ষে ১ লক্ষ ৬৩ হাজার ১৮৭ জনের করোনা পরীক্ষা হয়েছে। যার ফলে দেশে মোট করোনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬০ লক্ষ ৮৪ হাজার ২৫৬। গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা হওয়া নমুনাগুলির মধ্যে ৬.৭২ শতাংশের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

দেশের মধ্যে এখনও করোনায় সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রের। রাজ্যটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ১৩ হাজার ৪৪৫। মৃতের সংখ্যা ৫,৫৩৭। এখনও পর্যন্ত রাজ্যটিতে ৬ লক্ষ ৮৪ হাজার ২৬৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৭ হাজার ৮৫১ জন।

এদিকে রাজধানী দিল্লির অবস্থাও ক্রমেই খারাপ হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় জাতীয় রাজধানীতে সংক্রমণের শিকার হয়েছেন ১,৮৫৯ জন। ফলে দিল্লিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৪,৬৮৮। গত ২৪ ঘণ্টায় মারণ ভাইরাস প্রাণ কেড়েছে ৯৩ জনের। ফলে মৃতের সংখ্যা হয়েছে  ১৮৩৭। দিল্লিতে এখনও পর্যন্ত করোনা মুক্ত হয়েছে ১৬,৫০০। এদিকে জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সতেন্দ্র জৈনের প্রথম করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এই অবস্থায় বুধবার ফের তাঁর করোনা পরীক্ষা হতে চলেছে।