চলিত মাসের শুরুতে একটু একটু করে লকডাউন শিথিল হতে শুরু করে দেশে। ভারতে শুরু হয় আনলক ১। কিন্তু এই পর্যায়তেই সংক্রমণ ক্রমশ বেড়ে চলেছে দেশে। দিল্লিতে কমিউনিটি ট্রান্সমিশ নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। আর এর মধ্যেই ১৬ ও ১৭ তারিখ সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ফের ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী। এর পরেই জোর জল্পনা তৈরি হতে থাকে দিল্লি সহ দেশের করোনা প্রবম রাজ্যগুলিতে ফের কঠোর লকডাউনের পথে হাঁটতে চলেছে সরকার। কিন্তু সোমবার দুপুরে সেই জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে দিল্লিতে সোমবার সর্বদল বৈঠক ডেকেছিলেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এই বৈঠকের পরেই মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানান, নতুন করে রাজধানীতে লকডাউনের কোনও পরিকল্পনা নেই। সর্বদল বৈঠকের পর কেজরি ট্যুইট করেন, "অনেকেই জল্পনা ছড়াচ্ছেন দিল্লিতে ফের একবার নতুন করে লকডাউন হতে পারে। আমি তাঁদের জানাতে চাই, এই ধরণের কোনও পরিকল্পনা নেই।"

 

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর এই ট্যুইটের পরেই মোটামুটি স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারও লকডাউন ফের লাগু করা নিয়ে এখনো কিছু ভাবছে না। এদিকে দিল্লিতে এবার গণ করোনা পরীক্ষা করা হবে। সোমবার রাজধানীর করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সর্বদল বৈঠকের পর একথা ঘোষণা করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

 

 

নর্থ ব্লকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ডাকা এদিনের বৈঠকে দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ছিলেন কংগ্রেস, বিএসপি, সমাজবাদী পার্টির প্রতিনিধিরাও। রাজধানীতে করোনা সংক্রমণ রোখার একমাত্র উপায় গণ পরীক্ষা। সূত্রের খবর, বৈঠকে এমনটাই দাবি করেছিল কংগ্রেস। সেই দাবিতে সম্মতি জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

করোনা ফিরিয়ে নিয়ে এল প্রাচীন প্রথা, পুরীর রথ এবার টানতে চলেছে গজরাজ

সূর্যগ্রহণের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে করোনা সংক্রমণের, চাঞ্চল্যকর দাবি এবার চেন্নাইয়ের বিজ্ঞানীর

করোন নিয়ে আরও আশঙ্কার কথা শোনালেন গবেষকরা, ভারতে নভেম্বরে সবচেয়ে তীব্র হবে সংক্রমণ

এদিকে দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমমের শিকার হয়েছেন ২,২২৪ জন। ফলে জাতীয় রাজধানীতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। মারণ ভাইরাস প্রাণ কেড়েছে ১,৩২৭ জন দিল্লিবাসীর। রবিবার দিল্লিতে ৭,৩৫৩ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। স্বাস্থ দফতরের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী জাকীয় রাজধানীতে এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষ ৯০ হাজারের বেশি করোনা পরীক্ষা হয়েছে। তবে সবথেকে আশঙ্কার গত ৭ দিনে গড়ে তিনটি নমুনার মধ্যে একটি পজিটিভ  পাওয়া যাচ্ছে। পরিস্থিতি যা তাতে জুলাই মাসের শেষে জাতীয় রাজধানীতে করোনা সংক্রমণের সখ্যা পাঁচ লক্ষ ছাড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন খোদ দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী।