অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাক্তন বিধানসভা অধ্যক্ষ তথা তেলুগু দেশম পার্টির নেতা কোডেলা শিব প্রসাদ আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার হায়দরাবাদে তাঁর বাসভবনে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্য়া করেন তিনি। মৃত্যকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। 

সূত্রের খবর, কোডেলা এবং তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি এবং অর্থনৈতিক অনিয়মের অভিযোগ ছিল। এদিন সকালে তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাসব তারকর্মা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু অনেক চেষ্টা করা হলেও শেষ রক্ষা হয়নি। তাঁকে অবশেষ মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। 

প্রসঙ্গত, জগন্মোহন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির অন্ধ্রপ্রদেশে ক্ষমতায় আসার পর কোডেলা এবং তাঁর ছেলে এবং মেয়ের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। শুধু তাই নয়, তাঁর বিরুদ্ধে অন্ধ্রপ্রদেশ বিধানসভা থেকে আসবাবপত্র চুরির অভিযোগও রয়েছে। 

অন্ধ্রপ্রদেশের বিধানসভা কেন্দ্র থেকে ৬ বার বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ পর্যন্ত বিধানসভার অধ্যক্ষ ছিলেন তিনি। পাশাপাশি অন্ধ্রপ্রদেশের এনটি রামারাও এবং চন্দ্রবাবু নাইডুর সরকারেও মন্ত্রী হিসাবে নিজের দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। 

যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের জের, সাদা পতাকা দেখিয়ে উদ্ধার করা হল নিহত দুই পাকিস্তানি সেনাকে

'হাউডি মোদী' অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, জানাল হোয়াইট হাউস

পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দু স্কুল শিক্ষকের ওপর হামলা,মন্দির তছনছ করে প্রতিবাদ বিক্ষোভ সিন্ধ প্রদেশে

উড়ানের পরই ইঞ্জিনে আগুন, বড়সড় বিপত্তির হাত থেকে রক্ষা পেল পাক বিমানের ২০০ যাত্রী

তাঁর আকস্মিক মৃত্যুতে গভীরভাবে শোক প্রকাশ করেছেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। সেইসঙ্গে শোক প্রকাশ করেছে তেলেঙ্গানার বিজেপি দলও। তেলেঙ্গানার বিজেপির মুখপাত্র কৃষ্ণসাগর রাও জানিয়েছেন, অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বিধানসভার অধ্যক্ষ  কোডেলা শিবপ্রসাদ-এর মৃত্যুতে তাঁরা গভীরভাবে শোকাহত। তাঁর পরিবারের তরফেও সমবেদনা জানান তিনি। তবে কি তিক্ত রাজনীতির চাপে জর্জরিত হয়েই মৃত্যু বরণ করে নিলেন তিনি, সেই নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।