সোমবার থেকে ভারত রাষ্ট্র সংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলে দু বছরের অস্থায়ী সদস্যরূপে যাত্রা শুরু করতে চলেছে। আর সেই উপলক্ষ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে এতদিন ভারত রাষ্ট্র সংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলে কী কী ধরেনের কাজ করেছে। ভারত মূলত আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া দেশগুলির পাশে দাঁড়িয়ে। নারী নিরাপত্তায় একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় একের পর এক কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। রাষ্ট্র সংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমূর্তি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাঁর ও তাঁর দলের পক্ষ থেকে দেশবাসীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। 

রাষ্ট্র সংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমূর্তী ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন। নতুন বছরের প্রথম সোমবারই ভারতের সঙ্গে নরওয়ে, কেনিয়া, আয়ারল্যান্ড, মেক্সিকো- পাঁচটি দেশ বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করবে। চিন, ফ্রান্স, রাশিয়া, ব্রিটেন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মত পাঁচ স্থায়ী সদস্য দেশের সঙ্গে পাঁচ অস্থায়ী সদস্য দেশ এস্তোনিয়া, নাইজার, সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইনস, তিউনিসিয়া ও ভিয়েতনামও অংশগ্রহণ করবে। ২০২১ সালের অগাস্টে ভারত রাষ্ট্র সংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলের সভাপতি হবে। ২০২২ সালে এক মাসের জন্য আরও একবার কাউন্সিলের সভাপতিত্ব করবে। কাউন্সিলের সভাপতির পদটি প্রতিটি সদস্য দেশ এক মাস করে পায়। সদস্যদেশগুলির নামের ইংরেজি বর্ণমালা অনুসারে তৈরি হয় ক্রম তালিকা। 

ট্রাকেই সাজানো ঘর আন্দোলনকারীর,কৃষকদের সঙ্গে বৈঠকের আগেই সরকারকে নিশানা মা ও ছেলের ...

করোনা-টিকার জন্য কী ভাবে নথিভুক্ত করবেন নাম, টিকা প্রদান থেকে ট্র্যাকিং জেনে নিন

২০১৮ সালে কাজাখাস্তান প্রথম পাতাকা উত্তোলন করেছিল। তারপর থেকে প্রায় সবদেশই এই অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে নতুন পথ অতিক্রম করে। রাষ্ট্র সংঘে কাজাখস্তানের প্রাক্তন স্থায়ী প্রতিনিধি কায়রাত উমারভ বলেছেন গৌরবময় এই অনুষ্ঠানটি নতুন সদস্যদের তাদের প্রাপ্য স্বীকৃতি ও সম্মিত দেয়।