বৃহস্পতিবার দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ৯ লক্ষ ৭৪ হাজারে। যা পরিস্থিতি তাতে দৈনিক সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে আশঙ্কা করা হচ্ছে চলতি সপ্তাহেই ভারতে মোট সংক্রমণের সংখ্যা ১০ লক্ষ ছাড়িয়ে ছাবে। আর এর মধ্যেই আরও আশঙ্কার খবর শোনাল বেঙ্গালুরুর  ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্সের (আইআইএসসি)বিজ্ঞানীরা। এখন দেশে যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে তা বডায় থাকলে সেপ্টেম্বরের শুরুতেই ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লক্ষ পৌঁছে যাবে। আর দেশে মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা হবে সংক্রমিতের ৩৫ শতাংশ।

আইআইএসসি-এর দেওয়া পূর্বাভাস অনুযায়ী সেপ্টেম্বরের শুরুতে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লক্ষের গণ্ডি ছোঁয়ার পাশাপাশি  ওই সময়সীমার মধ্যে দেশে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে হবে ১০ লক্ষ। মৃতের সংখ্যা ১ লক্ষ ৪০ হাজার ছাড়াতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ নিয়েও পূর্বাভাস দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাতে দেখা যাচ্ছে এরাজ্যে সেপ্টেম্বরের শুরুতে মোট সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৬০ হাজার হতে পারে। মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ছাড়িয়ে যাবে। সেই সময়ে  পশ্চিমবঙ্গে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা হবে ১৯ হাজারের বেশি থাকতে পারে।   

আরও পড়ুন: করোনা বিশ্বে আমেরিকা নয় বিল গেটসের ঘোড়া ভারত, ভ্যাকসিন নিয়ে আস্থা এদেশের ফার্মা কোম্পানিগুলির উপর

তবে এর মধ্যে পরিস্থিতির উন্নতি হলে সেপ্টেম্বরের শুরুতে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যআ ২০ লক্ষের কাছাকাছি থাকবে বলে জানাচ্ছে আইআইএসসি। সেক্ষেত্রে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা থাকবে ৫ লক্ষের কাছাকাছি। আর মৃতের সংখ্যা পৌঁছে যাবে ৯০ হাজারের আশেপাশে।

আরও পড়ুন: করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে কিশোরী, আইসোলেশন ওয়ার্ডেই হতে হল ধর্ষণের শিকার

এই সতর্কবার্তার পাশাপাশি রাজ্যভিত্তিক সংক্রমণের একটি রেখাচিত্র আঁকার চেষ্টা করেছেন আইআইএসসির বিজ্ঞানীরা। তাতে দেখা যাচ্ছে,  এই সময়ের মধ্যে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াবে ৬ লক্ষের বেশি। আর এর পরেই থাকবে দিল্লি, তামিলনাড়ু এবং গুজরাত। রিপোর্টে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, পরিস্থিতি যদি এভাবেই এগোতে থাকে তাহলে ১ নভেম্বরের মধ্যে সংক্রমণের সংখ্যা  ১ কোটি ২০ লক্ষ ছাড়াবে  এবং মৃত্যু হবে ৫ লক্ষ মানুষের। আর জানুয়ারি মাসের মধ্যে এই সংখ্যাটা পৌঁছবে যথাক্রমে ২ কোটি ৯০ লক্ষ এবং ১০ লক্ষে। অর্থাৎ দেশের ২ শতাংশের বেশি মানুষই এবছরের মধ্যে করোনা ভাইরাসের শিকার হবেন। পরিস্থিতি যা তাতে বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা ২০২১ সালেও করোনার সংক্রমণ নাজেহাল পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে গোটা দেশে।