করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে এই দেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১১,৯২৯ জন। যা এখনও পর্যন্ত সবথেকে বেশি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৩,২০, ৯২২ জন।   আর  শনিবার থেকে এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩১১ জনের। করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৯,১৯৫ জনের। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত ১,৬২,৩৭৯ জন মানুষ সুস্থ হয়েছেন। 


আক্রান্তের ক্রম তালিকায় এখনও পর্যন্ত প্রথম স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। আক্রান্তের সংখ্যা ১,০৪,৫৬৮। মৃত্যু হয়েছে ৩৮৩০ জনের। দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে তামিলনাড়ু। আক্রান্ত ৪২ হাজারেরও বেশি। তৃতীয় স্থানে রয়েছে দিল্লি। আক্রান্তে ৩৮ হাজারের বেশি। মৃত্যু হয়েছে ১,২৭১ জনের। চতুর্থ স্থানে রয়েছে গুজরাট। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২৩,০৩৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ১,৪৪৮ জনের।  দেশের করোনা আক্রান্ত রাজ্যগুলির ক্রম তালিকায় ৭ নম্বরে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজারের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় এই রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছে ৪৫৪ জন। এখনও পর্যন্ত এই রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৬৩ জনের। 

পিপিই-র দাম দেখেই চক্ষু চড়কগাছে, হাসপাতালের বিল মেটাতে ঋণ করতে হল করোনা আক্রান্তকে ...

'চুম্বনে করোনা' সারানোর দাবি করেতেন, নিজে মরে তান্ত্রিক সংক্রমিত করে গেলেন ২০ জনকে ...

ক্ষমা চাইতেই হবে বললেন রাজ্যপাল, মৃতদেহ সৎকার ইস্যুতে রাজভবনের সঙ্গে বাকযুদ্ধ অব্যাহত রাজ্যসরকারের ...


শনিবারই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ছাড়িয়েছিল। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশগুলির ক্রম তালিকায় ভারতের স্থান চতুর্থ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল আর রাশিয়ার পরেই। 

দেশের করোনা পরিস্তিতি নিয়ে শনিবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ সহ মন্ত্রিসভার একাধিক সদস্য ও সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। দিল্লিসহ কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলির পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়েছে।