লিঙ্গ বৈষম্যতা দূর করতে এক অন্যন্য নজির তৈরি করল ভারতীয় নৌ বাহিনী। এবার থেকে ভারতীয় নৌবাহীনর যুদ্ধ জাহাজে মোতায়েন থাকবেন দুই মহিলা আধিকারিক। যুদ্ধ জাহাজে ক্রু মেম্বার হিসেবেই তাঁরা তাঁদের দায়িত্বভার সামলাবেন। আর ভারতীয় নৌবাহিনী ছাড়পত্র দিয়েছে সাব ফেলটেন্যান্ট কুমুদিনী ত্যাগি আর সাব লেফটেন্যান্ট রীতি সিংকে।প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে এই দুই মহিলা আধিকারিক নৌবাহিনীর নতুন এমএইচ-৬০ আর হেলিকপ্টার চালাবেন। এমএইচ-৬০ আর হেলিকপ্টারগুলি শুক্রু জাহাজ বা সাবমেরিনকে চিহ্নিত করতে সাহায্য করবে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে এই তরুণ আদিকারিকের হাত ধরেই বদলে যাবে নৌবাহিৃহিনীর পুরনো নিয়ম। সেনার কনসোলস, আইএসআর সহ নেভির মাল্টি রোল হেলিকপ্টারের সেন্সার পরিচালনার প্রতিক্ষণ নিচ্ছেন কুমুদিনী আর রীতি।  


তবে এর আগেও ভারতীয় নৌবাহিনীর আধিকারিক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে মহিলাদের। কিন্তু যুদ্ধ জাহাজগুলিতে মহিলা অফিসারদের নিয়োগ করা হয়নি। একটি সূত্র বলছে ক্রু কোয়ার্টারের গোপনীয়তা বা মহিলাদের জন্য নির্দিষ্ট শৌচালয়ের সমস্যা থাকায় যুদ্ধজাহাজগুলিতে মহিলা অধিকারিকদের নিয়োগ করা হত না। কিন্তু সেই সমস্যা ধীরে ধীরে কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করা হচ্ছে। যার সূত্রপাত হল কুমুদিনী আর রীতির হাত ধরে। 

ডেরেক ও দোলার পক্ষ নিয়ে সওয়াল তৃণমূল কংগ্রেসের, সরকারকে স্বৈরাচারী বললেন মমতা ..

এবার রাফাল যুদ্ধ বিমান ওড়াবেন মহিলা যোদ্ধা পাইলট, শুরু হয়ে গেছে তারই প্রক্রিয়া ...

প্রতিপক্ষের আতঙ্ক বাড়িয়ে লাদাখের আকাশে রাফাল, সীমান্ত উত্তাপ কমাতে ভারত-চিন বৈঠক

একই দিনে ভারতীয় সেনাবাহিনীর মহিলা সেনাদের জন্য দুটি সুখবর এল। কারণ একটি সূত্রের মাধ্যমে জানা গিয়েছে এবার থেকে রাফাল যুদ্ধা জাহাজ চালানোর জন্য ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে মহিলাদের। দশ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। তারমধ্যে থেকে বেছে নেওয়া হবে এক জনকে। আর এই দিনই যুদ্ধ জাহাজে দুই মহিলা আধিকারিক মোতায়েন থাকার জন্য ছাড়পত্র পেলেন। এবার থেকে ভারতীয় বিমান আর নৌবাহিনীতে মহিলারা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবেন পুরুষ সহকর্মীদের।