'প্যান্টে হিসি করে দিতেন'। ঠিক এই ভাষাতেই সমালোচকদের একহাত নিলেন দক্ষিণী অভিনেত্রী তথা রাজনীতিবিদ খুশবু সুন্দর। গত বুধবার এক তাঁর গাড়িতে দুর্ঘটনা ঘটেছিল বলে জানিয়েছিলেন তিনি। তারপরই তাঁর গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটনা ভুয়ো ববলে দাবি করেছিলেন এক তামিল কার্টুনিস্ট। তারই জবাবে কুশবু জানালেন, তাঁর মতো দুর্ঘটনায় পড়লে ভয়ে ওই কার্টুনিস্ট মূত্রত্যাগ করে ফেলতেন।

বুধবার খুশবু তাঁর গাড়ি দুর্ঘটনার খবর জানানোর পর থেকেই টুইটারে অনেকেই দাবি করেন, তিনি দুর্ঘটনার কাহিনি বানাচ্ছেন। কারণ দুর্ঘটনার কোনও ছবিতে দেখা যাচ্ছে, তিনি গাড়ির সামনের আসনে বসে আছেন, আবার কোনওটিতে তিনি পিছনে। আরও একধাপ এগিয়ে বালা নামে এক তামিল কার্টুনিস্ট বলেছিলেন, খুশবু যে একজন দুর্দান্ত অভিনেত্রী, তাঁর দুর্ঘটনার ছবিগুলিই তার প্রমাণ। আরএসএস-কে উদ্দেশ্য করে তিনি আরও ভাল টিত্রনাট্য বানানোর আহ্বান জানান। কারণ এই চিত্রনাট্যে 'অনেক ফাঁক আছে'।

আরও পড়ুন - জিডিপি নিয়ে ভারতকে খোঁটা দিল বাংলাদেশ, '৭১-এর পর নাকি 'অনুপ্রবেশ ঘটেইনি'

আরও পড়ুন - প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে কুরুচিকর টুইট, আঙুল দেখিয়ে নতুন মামলায় ফাঁসলেন কামরা

আরও পড়ুিন - এআইমিম-এর সঙ্গে কি জোট গড়বে তৃণমূল, বাংলার রাজনীতিতে বোমা ফাটালেন ওয়াইসি

এরই জবাবে খুশবু বলেছেন জবাব দিয়ে বলেছেন, বালা কাপুরুষের ভাষা বলছেন। সম্মুখে সাক্ষাত মৃত্যু দেখলে তিনি প্যান্ট ভিজিয়ে ফেলবেন বলে দাবি করেন খুশবু কারণ বালা তাঁর মতো সাহসী নন। তিনি ওই কার্টুনিস্টকে সাহস থাকলে একটি ভুয়ো দুর্ঘটনার তৈরি করার চ্যালেঞ্জও করেছেন। তাঁর মতে,কোটি কোটি মানুষের ভালবাসা তাঁর সঙ্গে ছিল বলেই, তিনি দুর্ঘটনার পরও বেঁচে গিয়েছেন। আরও ওই ছবিগুলি সম্পর্কে তাঁর ব্যাখ্যা, সামনে আসনে বসা অবস্থায় এবং পিছনের আসনে বসা অবস্থায় তাঁর পোশাক আলাদা ছিল। তাই দুটি ছবি যে একসময়ে তোলা নয়, তা বোঝাই যাচ্ছে।

এর আগে নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপির সমালোচনা করলেও, গত মাসেই কংগ্রেস ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন খুশবু।