ত্রিপুরায় তৃণমূলে বড়সড় যোগদান পর্ব, একসঙ্গে ঘাসফুলে যোগ দিলেন দু’শো জনেরও বেশি মানুষ

| Sep 24 2022, 08:30 AM IST

ত্রিপুরায় তৃণমূলে বড়সড় যোগদান পর্ব, একসঙ্গে ঘাসফুলে যোগ দিলেন দু’শো জনেরও বেশি মানুষ

সংক্ষিপ্ত

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ তুলেছেন যে, রাজ্য জুড়ে ‘সুশাসন’ নয়, প্রত্যেক ঘরে ঘরে ‘কুশাসন’ চালিয়েছে বিজেপি সরকার। তাঁর উপস্থিতিতে এত নেতাকর্মী একসঙ্গে যোগ দিয়েছেন বলে খবর। 

ত্রিপুরার বিভিন্ন জেলা জুড়ে অন্যান্য রাজনৈতিক দল ছেড়ে এসে ঘাসফুলে যোগদান অব্যাহত। দুর্গাপুজোর আগে ফের যোগদান করলেন বহু সদস্য। এ নিয়ে রাজ্যে এখন প্রমাদ গুনছে বিজেপি। তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে, বামুটিয়া ব্লকের কংগ্রেস নেতা গোপাল মালাকার সহ ৪৫টি পরিবারের প্রায় ২০২ জন শুক্রবার ঘাসফুল শিবিরে যোগদান করলেন।

তৃণমূলের স্টেট ইনচার্জ রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, কোর কমিটির সদস্য মামন খান এবং জেলা কনভেনার পীযূষ কান্তি দেব রায়ের উপস্থিতিতে এত নেতাকর্মী একসঙ্গে যোগ দিয়েছেন বলে খবর। স্টেট ইনচার্জ রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ তুলেছেন যে, রাজ্য জুড়ে ‘সুশাসন’ নয়, প্রত্যেক ঘরে ঘরে ‘কুশাসন’ চালিয়েছে বিজেপি সরকার। এটা প্রমাণ হয়ে গেছে যে, গত সাড়ে চার বছর ধরে উন্নয়নের লেশমাত্র দেখেনি ত্রিপুরাবাসী। 

Subscribe to get breaking news alerts

অপরদিকে, সোনামুড়ায় শিক্ষককে মারধর করা নিয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। ২৩ সেপ্টেম্বর কাজী নজরুল মহাবিদ্যালয়ের প্রিন্সিপালের ওপর ঘটে যাওয়া দুঃখজনক ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিনিধি দল সোনামুড়া এসডিপিও-র কাছে এক চিঠি পেশ করে। যারা এই নিন্দনীয় ঘটনাটি ঘটিয়েছে তাদের কঠোর শাস্তির  দাবি নিয়ে চিঠি জমা দেওয়া হয়েছে ছাত্র পরিষদের তরফ থেকে। চিঠি পেশের দিন উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ইনচার্জ নীল কমল সাহা, ছাত্র নেতা শিবম সাহা, জয় দাস, সোলাঙ্কি সেনগুপ্ত, যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সহ সভাপতি মাসুক খান, সোনামুড়া সাংগঠনিক জেলা কনভেনর হাবিল মিয়া সহ বহু নেতা নেত্রীরা। 

ছাত্র পরিষদের ইনচার্জ নীল কমল সাহার বক্তব্য, "গতকাল যে ঘটনাটি ঘটে গেছে, সেটা হয়তো সোনামুড়ার ইতিহাসে প্রথমবার ঘটেছে, যেখানে একজন গুরুকে তাঁর শিষ্যরা এইভাবে মেরেছে। এবিভিপির ছাত্ররা যখন চাঁদা আদায়ের জন্য বলে, তখন প্রিন্সিপাল বাধা দেয়, তাই তাঁকে মারা হয়।’’ নীল কমল সাহা আরও বলেছেন, ‘‘আমরা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা এবং ধিক্কার জানাচ্ছি, কারণ এরকম পরিবেশ সোনামুড়াতে কখনও হয়নি, কিন্তু এই পরিবেশ সব জায়গায় শুরু হচ্ছে, মানুষের গায়ে হাত তোলা হচ্ছে, তাঁদের বাড়ি ভেঙে দেওয়া হচ্ছে, শিক্ষকদের ওপর আক্রমণ চালানো হচ্ছে। গণতন্ত্র কোথায়? আমরা জানিয়েছি যাতে অতি সত্বর এই ঘটনার সঠিক তদন্ত হয় এবং দোষীদের কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়।’’


আরও পড়ুন-
৫৫ কোটি টাকার সোনা! বেলঘরিয়া এক্সপ্রেসওয়েতে মারুতি গাড়ি আটকাতেই চক্ষু চড়কগাছ পুলিশ কর্তাদের
চোখের পাওয়ার বাড়ছে, দৃষ্টিশক্তি কমে যাচ্ছে? প্রতিদিনের তালিকায় অবশ্যই রাখুন এই কয়েকটি খাবার
আসছে নতুন পুজোর গান, কাধে তুলে নিয়ে ঢাক বাজাচ্ছেন মিমি, সাবেকিয়ানার সাজে মুগ্ধ অনুরাগীরা

null