গত কয়েকমাসে দেশে নারীদের উপর যৌন নির্যাতন ও শ্লীলতহানির একাধিক ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। নির্জন রাস্তায় অনেক সময়ই হেনস্থার শিকার হতে হয় একলা চলা মেয়েদের। এরকমি এক ঘটনা হতবাক করে দিয়েছে গোটা দেশকে। বাণিজ্য নগরী মুম্বইয়ের  এক রেলস্টশেনর নির্জন রেলসেতুতে এক তরুণীকে জোর করে চুম্বন করছে এক তরুণ। গোটাটাই ধরা পড়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায়। 

এই ঘটনা সামনে আসে এক মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে। সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে, কোনও মহিলা নির্জন রেলসেতু দিয়ে যাতায়াত করলেই আচমকা গায়ে হাত দিয়ে বা চুমু খেয়ে পালিয়ে যাচ্ছে সেই যুবক। মহিলারা কিছু বুঝে ওঠার আগেই ঘটছে গোটা ঘটনা। তাই হতবাক তরুণীদের কিছু করারও থাকছে না। 

আরও পড়ুন: রাজধানীতে শতায়ু ভোটাররা পাচ্ছেন ভিআইপি-র মর্যাদা, সবচেয়ে প্রবীণা ১১০ বছরের কালীতারাদেবী

মুম্বইয়ের মাতুঙ্গা রেল স্টশেনর কাছে একটি রেলসেতুতে এই ঘটনা ঘটাত ওই যুবক। সিসিটিভিতে দেখে বোঝা যাচ্ছে তার বয়স বেশি নয়। তবে শ্লীলতাহানি নয় তার বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ করেন এক মহিলা। তিনি অভিযোগ করেন, রেলসেতুতে তাঁর ব্যাগ ছিনতাই করেছে এক যুবক। তার তদন্তে নেমেই সিসিটিভি ফুটেজ দেখে চিহ্নিত করা হয় ওই যুবককে। তখনই বাকি সব ফুটেজ সামনে আসে। ফাঁস হয় তার কীর্তিও। জানা গেছে অভিযুক্তের নাম রাইদুর হাবিবুর খান। 

আরও পড়ুন: শনিবার ভোট রাজধানীতে, তার আগেই ঘুষ নিতে গিয়ে সিবিআই জালে সিসোদিয়া ঘনিষ্ঠ আধিকারিক

তবে চুরির অভিযোগ দায়ের হলেও এখনও ওই যুবকের বিরুদ্ধে শ্লীলতহানির অভিযোগ দায়ের করেনি কেউ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২৫ জানুয়ারির সিসিটিভি ফুটেজে ওই শ্লীলতাহানির ছবি ধরা পড়েছে। বারবার মহিলাদের চুম্বন করে, তাঁদের গায়ে হাত দিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে ওই যুবক। এই পরিস্থিতিতে ওই যুবকের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করার কথা ভাবছে মুম্বই পুলিশ। 

এরআগে ২০১৯ সালে মুম্বইয়ের মালদ এলাকায় একই রকম অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল ২৪ বছরের এক যুবককে। ধৃত ব্যক্তি নিজের বাইসাইকেলে করে  এসে  কলেজপড়ুয়া তরুণীদের শ্লীলতাহানি করত। সেবারই সিসিটিভ ফুটেজ দেখে কান্দিভালি এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে মালদ পুলিশ।