Asianet News BanglaAsianet News Bangla

'নাকে তেল ঢেলে ঘুমাচ্ছিলেন?' নয়ডার টুইন টাওয়ার ধ্বংসের দিন সাইরেনের আয়াজেও ঘুম ভাঙেনি এক আবাসিকের

আসে পাশের আবাসনের সমস্ত আবাসিকরা ফ্ল্যাট খালি করে বেরিয়ে যান। তালিকা মেলায় প্রশাসন। কিন্তু খোঁজ পাওয়া যায়নি এক ব্যক্তির। আর তারই খোঁজে শুরু হয় তল্লাশি। রীতিমত চিরুনি তল্লাশি শুরু করে প্রশাসন। কিন্তু খোঁজ পাওয়ায় যায়নি।

noida twin tower demolition one resident over deep slept on this time bsm
Author
First Published Aug 28, 2022, 7:20 PM IST

রবিবারই হবে ধ্বংসলীলা। নয়ডার টুইন টাওয়ার নিয়ে তেমনই ঘোষণা ছিল প্রশাসনের। দুর্ঘটনা এড়াতে আগে থেকেই স্থানীয় আসাবিকদের ফ্ল্যাট খালি করে নিরাপদ স্থানে চলে যাওয়ারও নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। নয়ডা প্রশাসনের ঘোষণা অনুযায়ী এদিন সকাল ৭টার মধ্যে এলাকা খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।  নির্দেশ মেনে অধিকাংশই এলাকা ফ্ল্যাট খালি করে চলে গিয়েছিলেন।  কিন্তু খোঁজ পাওয়া যায়নি একজনের। আর সেই ব্যক্তির খোঁজে ধ্বংসের দিন রীতিমত ঘুম ছুটে ছিল প্রশাসনের। 

আসে পাশের আবাসনের সমস্ত আবাসিকরা ফ্ল্যাট খালি করে বেরিয়ে যান। তালিকা মেলায় প্রশাসন। কিন্তু খোঁজ পাওয়া যায়নি এক ব্যক্তির। আর তারই খোঁজে শুরু হয় তল্লাশি। রীতিমত চিরুনি তল্লাশি শুরু করে প্রশাসন। কিন্তু খোঁজ পাওয়ায় যায়নি। তিন হাজারেরও বেশি বিস্ফোরক ব্যবহার করে ভাঙা হবে আকাশ ছোঁয়া টুইন টাওয়ার , যা কিনা তার 'পাশের বাড়ি'। তাই তিনি যদি ফ্ল্যাট খালি না করে চলে যান তাহলে বড়সড় বিপদ হতে পারে। তার জন্যই নিখোঁজ ব্য়ক্তির খোঁজে শুরু হয় তল্লাশি। তবে শেষমেষ জানা যায় নিজের বাড়িতেই তিনি নাকে তেল দিয়ে গভীর ঘুমে মগ্ন। তাঁকে ডেকে তুলে ঘর থেকে অন্যত্র নিয়ে যায় পুলিশ।

তবে শুনলে আপনি আবাক হবে যে ব্যক্তি ঘুমাচ্ছিলেন তিনি এমারেল্ড কোর্টেরই বাসিন্দা। তবে অন্য বহুতলের আবাসিক।  যাঁর সাইরেনের আওয়াজেও ঘুম ভাঙেনি। তাতে কিছুটা অবাকই হয় প্রশাসনের কর্তারা।  কারণ এদিন সকাল থেকেই প্রশাসনিক কর্তা আর টাস্ক ফোর্সের কর্তারা প্রতিটি ফ্ল্যাটে গিয়ে গিয়ে আবাসিকদের ফ্ল্যাট খালি করার কথা বলে এসেছিলেন। তারপরেও কেন ওই ব্যক্তিকে দ্বিতীয় বারের জন্য ডাকতে হল তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তারই এই এলাকায় গত এক সপ্তাহ ধরেই তৎপরতা চলছি। টুইন টাওয়ারের প্রতিবেশী বহুতলের আবাসিকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। তাদের ফ্ল্যাট অক্ষত থাকবে কিনা এই প্রশ্নটাই উঠছিল বারবার।

নয়ডার এমারেল্ড কোর্টের টুইন টাওয়ার ভাঙার আগেই আশপাশের ১৪টি বহুতলের বাসিন্দাদের অন্যত্র চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। তারা গেছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে তৈরি হয়েছিল একটি স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। এলাক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল প্রায় ১৫০ কুকুর আর বিড়াল। প্রাণীগুলিকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। অন্যদিকে প্রতিবেশী আবাসিকরাও নিজেদের দামি দামি জিনিসপত্র গুছিয়ে নিয়ে বাড়ি খালি করে দিয়েছিলেন। 

৯ সেকেন্ডে গুঁড়িয়ে গেল নয়ডার টুইন টাওয়ার, ব্যবহৃত বিস্ফোরক ঠিক কতটা শক্তিশালী জেনে নিন

চোখের পলকে গুঁড়িয়ে গেল কুতুব মিনারের থেকে লম্বা নয়ডা টুইন টাওয়ার, দেখুন ভিডিও

মাত্র ১২ সেকেন্ডেই গুঁড়িয়ে যাবে কুতুব মিনারের থেকে উঁচু টুইন টাওয়ার , আতঙ্কের প্রহর শুরু নয়ডায়

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios